kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: হাওড়ায় লকডাউন পরিস্থিতিতে হটস্পট জোন এলাকার বাজারগুলো ইতিমধ্যেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।   কিন্তু আজ সকালেও হাওড়ার আন্দুলে দেখা গেল উল্টো ছবি। সেখানে আন্দুল রোডের হাঁসখালিপোল বাজার ছিল খোলা। আজও সেখানে বাজারে অবাধেই চলেছে বেচাকেনা। দেখা যায় মানুষের অসচেতনতার ছবি। হাঁসখালিপোল বাজারে বহু সংখ্যক মানুষ বাজারে আজও সকালে ভিড় করেন। এদের অধিকাংশই সচেতন নন।

এলাকার বাসিন্দাদের দাবি, পুলিশ-প্রশাসনকে অবিলম্বে কড়া হাতে ব্যবস্থা নিতে হবে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে আসে। দ্রুত ব্যবস্থা নেয়। ভিড় সরিয়ে দেওয়া হয়। অন্যদিকে, এদিন থেকেই কার্যত পুরোপুরি লকডাউন হতে চলেছে হাওড়ায়। হটস্পট এলাকায় প্রায় সব বাজার বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। কয়েকটি বাজার আগেই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। আজ থেকে কদমতলা বাজার বন্ধ করে দেওয়া হয়। পুলিশ জানিয়েছে,  চ্যাটার্জিহাট এবং জগাছার কয়েকটি বাজারও বন্ধ করা হবে। পাড়ায় পাড়ায় গাড়িতে করে বাজার বিক্রি হবে। মুদির দোকানের সামগ্রী হোম ডেলিভারি হবে। ইতিমধ্যেই বন্ধ হয়েছে পিলখানা বাজার, হরগঞ্জ বাজার, কালিবাবুর বাজার, গোরাবাজার, কদমতলা-সহ হাওড়ার কয়েকটি বাজার।

উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে শুক্রবার হাওড়া আসেন কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক দল। হাওড়ার বিভিন্ন হটস্পট, কোভিড হাসপাতাল, কোয়ারেন্টিন সেন্টার পরিদর্শন করেন তাঁরা। এই কেন্দ্রীয় দল প্রথমেই এসে পৌঁছয় হাওড়ার ডুমুরজলার কোয়ারেন্টিন সেন্টারে। হাওড়ার করোনা পরিস্থিতি পরিদর্শন করেন তাঁরা। ডুমুরজলা স্টেডিয়ামের কোয়ারেন্টিন সেন্টারে প্রায় চল্লিশ মিনিট ছিলেন তাঁরা। সেখানকার পরিস্থিতি তাঁরা খতিয়ে দেখেন। কথা বলেন সিএমওএইচ-সহ চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী ও চিকিৎসাধীন মানুষের সঙ্গে। সেখান থেকে দলটি রওনা হয় উলুবেড়িয়ার উদ্দেশে। সেখানে সঞ্জীবন বেসরকারি হাসপাতাল পরিদর্শন করেন তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here