ডেস্ক: আন্ডারওয়ার্ল্ড ডন দাউদ ইব্রাহিম শর্তসাপেক্ষে ভারতের কাছে নিজেকে আত্মসমর্পণ করতে চায় বলে সম্প্রতি জানিয়েছেন আইনজীবী শ্যাম কেশয়ানি। কিন্তু তার আগেই দাউদকে গ্রেপ্তার করতে উঠেপড়ে লাগল ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা। বুধবার দুবাইয়ে দীর্ঘদিন ধরে গা ঢাকা দিয়ে থাকা দাউদ ঘনিষ্ঠ এক গ্যাংস্টারকে গ্রেপ্তার করল সিবিআই। ধৃত ওই গ্যাংস্টারের নাম ফারুক টাকলা। ইতিমধ্যেই দুবাই থেকে ভারতে নিয়ে এসেছে সিবিআই।

১৯৯৩ সালে মুম্বই বিস্ফোরণের পর, গ্রেপ্তারির ভয়ে দাউদ টাকলা ও তার সাঙ্গোপাঙ্গ সহ দেশ ছাড়ে। মুম্বই বিস্ফোরণে অভিযুক্ত এই আন্তর্জাতিক গ্যাংস্টার টাকলা দুবাইতে খুন, অপহরণ, তোলাবাজির মতো একাধিক দুষ্কর্মের মাথা ছিল। ১৯৯৫ সালে তার বিরুদ্ধে রেড কর্নার নোটিশ জারি করে ইন্টারপোল। দীর্ঘদইন বেপাত্তা থাকার পর বুধবার দুবাই থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে সিবিআই। এরপর সংযুক্ত আরব আমিরশাহী তাকে ভারতের হাতে প্রত্যার্পনের সিদ্ধান্ত নেয়। এরপর এদিন ভোর পাঁচটা তাকে দুবাই থেকে বিমানে মুম্বই নিয়ে আসা হয়। আজই টাডা আদালতে তোলা হবে তাকে।

এদিকে ফারুক টাকলা গ্রেপ্তারের পর খুব শীঘ্রই দাউদকে গ্রেপ্তার করা হবে বলে মনে করছে বিশিষ্ট মহল। বিশ্বের কুখ্যাত অপরাধীদের তালিকায় অন্যতম এই দাউদ ইব্রাহিম। বর্তমানে দাউদ পাকিস্তানের আশ্রয়ে করাচিতে আছে বলে মনে করছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা। ১৯৯৩-এর ১২ মার্চ মুম্বইয়ে ১৩ জায়গায় বিস্ফোরণ হয়। এতে সাড়ে তিনশ জনের মৃত্যু হয়। এই হামলার পিছনে হাত ছিল দাউদের। ২০০৩ সালে তাকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি তকমা দেয় আমেরিকা। ২০১১ সালে ফোর্বস পত্রিকা তাকে বিশ্বের ভয়ংকর অপরাধীদের তালিকার মধ্যে উপরের সারিতে রাখে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here