ডেস্ক: মানুষের মানবিকতা-পৈশাচিকতা আজ কোথায় গিয়ে দাঁড়িয়েছে এই ঘটনায় তার প্রমাণ মেলে! মানুষ এতটা পাশবিক হতে পারে তা ভাবলেই শিউরে উঠতে হয়৷ নিজের মেয়েকে শ্লীলতাহানি করতে পর্যন্ত এখন হাত কাঁপে না বাবার৷ মেয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে গ্রেপ্তার করা হয় বাবা নকুল দাসকে (৩৯)।

চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হুগলি জেলার মগরার শিবপুর রোডে। অভিযোগ, জুটমিল শ্রমিক নকুল দাস চার বছর ধরে লাগাতার তার মেয়ের শ্লীলতাহানি করছে। প্রথমের দিকে বুঝতে না পারলেও পরে বিষয়টি তার মা’কে জানিয়েছিল নবম শ্রেণীর ওই ছাত্রী। কিন্তু লোকলজ্জা ও স্বামী নকুল দাসের ভয়ে তিনি মুখ খোলেননি। এভাবে শারীরিক নির্যাতন ও অত্যাচার দিনের পর দিন ক্রমাগত বাড়তে থাকে৷

সম্প্রতি রাতে মায়ের পাশে ঘুমন্ত অবস্থায় থাকার সময় ফের পিশাচ বাবার লালসার শিকার হয় ওই কিশোরী। এরপর তাঁর মা নিজের ভাইয়ের সাহায্যে চাইল্ড লাইনে যোগাযোগ করেন। থানায় অভিযোগও জানানো হয়। তার ভিত্তিতে নকুল দাসকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। এদিন তাকে আদালতে তোলা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here