kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হুগলি: করোনা আক্রান্ত মৃতদেহ দাহ করা হচ্ছে দ্বারকেশ্বর নদ সংলগ্ন এলাকায়। ফলে সেখানে ছড়াতে পারে সংক্রমণ। এই খবর ছড়িয়ে পড়তেই আরামবাগ-বন্দর রাস্তার গির্জাতলায় অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রামবাসীরা। ঘটনার জেরে এলাকায় ব‍্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে। আরামবাগ থানার পুলিশ এসে গ্ৰামবাসীদের সঙ্গে কথা বলে আশ্বাস দেওয়ার পর অবরোধ তুলে নেয় গ্ৰামবাসীরা। অবরোধের জেরে নাকাল হতে হয়  নিত‍্যযাত্রীদের।

আরামবাগের দ্বারকেশ্বর নদ সংলগ্ন পার্বতী চক, বৃন্দাবনপুর-সহ বেশ কয়েকটি গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগ, গতকাল রাতের অন্ধকারে পুলিশ-প্রশাসনের পক্ষ থেকে দ্বারকেশ্বর নদ সংলগ্ন এলাকায় করোন সংক্রমিত মৃতদেহ সৎকার করা হয়। এর আগেও প্রশাসন এইভাবে মৃতদেহ সৎকার করেছে। খোলামেলা জায়গায় এইভাবে সৎকার হলে এলাকায় সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে। তা নিয়ে গতকাল রাতেও আপত্তি তোলে গ্ৰামবাসীরা।

টহলরত পুলিশের গাড়ি আটকে গতকাল রাতেই বিক্ষোভ দেখায় গ্ৰামবাসীরা। এবং লাঠি হাতে রাতে এলাকা পাহারাও দেয় কয়েকজন গ্ৰামবাসী। আজ সকালে বিষয়টা আরও অনেক মানুষ জানতে পারলে গ্ৰামবাসীদের মনে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়। সংক্রমিত কোনও মৃতদেহ পোড়ানো যাবে না গ্ৰামে- এই দাবিতে, আরামবাগ-বন্দর রোড অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে গ্রামবাসীরা। কয়েক ঘণ্টা বিক্ষোভ চলার পর পুলিশের আশ্বাসে বিক্ষোভ তুলে নেয় গ্ৰামবাসীরা। দীর্ঘক্ষণ রাস্তা অবরোধের ফলে চূড়ান্ত অসুবিধার মধ‍্যে পড়তে হয়  নিত‍্যযাত্রীদের।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here