kolkata news

Highlights

  • মুক-বধির প্রতিবন্ধী এক যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে
  • ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের মাথাভাঙার শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার গাদলেরকুঠি গ্রাম এলাকায়
  • ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি পলাতক


নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার:
মুক-বধির প্রতিবন্ধী এক যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ওই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয় এলাকায়। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের মাথাভাঙার শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার গাদলেরকুঠি গ্রাম এলাকায়। ওই ঘটনার পর মুক-বধির প্রতিবন্ধী যুবতীর পরিবারের মাথাভাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি পলাতক। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

অভিযোগ, গত রবিবার দুপুর ১২টা নাগাদ প্রতিবেশী নান্দুরা বর্মন নামে এক ব্যক্তি মুক-বধির প্রতিবন্ধী এক যুবতীকে টেনে- হিঁচড়ে পুকুরের ধারে নিয়ে গিয়ে জোর করে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। ঘটনার দৃশ্য নিজের চোখে দেখেন ওই যুবতীর বৌদি। তিনি চিৎকার শুরু করেন। পরিবারের লোকজন ছুটে আসতেই ওই ব্যক্তি সেখান থেকে পালিয়ে যায়। পরে সংজ্ঞা হারান ওই যুবতী। তাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে মাথাভাঙা মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে মাথাভাঙা থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়। ঘটনার দিন থেকে অভিযুক্ত নান্দুরা বর্মন পলাতক। অভিযোগ পেয়ে পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।

মাথাভাঙা ১ নম্বর ব্লকের শিকারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের গাদলেরকুঠি গ্রাম এলাকার পঞ্চায়েত সদস্য অঞ্জলি বর্মন বলেন, ওই ঘটনার পর সালিশি সভা করা হয়। সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, আইন মোতাবেক নান্দুরা বর্মনের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পুলিশের কাছে আবেদন জানান হয়। প্রতিবেশীরাও চাইছেন ধর্ষণকারীর ফাঁসি হোক। ওই যুবতীর বাড়ির লোকজন অভিযুক্ত নান্দুরার কঠিন শাস্তি দাবি করেছেন। ঘটনার পর থেকে নান্দুরা বর্মন পলাতক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here