ডেস্ক: দুঃসাহসিক ডাকাতির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল এলাকায়৷ ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার লিলুয়া থানা এলাকার কোনা পূর্ব পাড়ায় সুভাষ বারুই নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে৷

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগে সুভাষ বাবু একটি জমি বিক্রি করে দশ লক্ষ আটষট্টি হাজার টাকা পেয়েছিলেন৷ দিন দুই আগে তিনি বাড়িতে দুই মেয়ে-জামাইকে রেখে বাইরে বেড়াতে যান। জমি বিক্রির টাকা বাড়ির আলমারিতেই ছিল৷ অভিযোগ, রবিবার রাত দুটো নাগাদ আট জনের একটি দুষ্কৃতী দল ঘরের দরজা ভেঙে ঢুকে পড়ে৷ সুভাষবাবুর ছোট মেয়ে ও মেজ মেয়ের মুখ চেপে ধরে জমি বিক্রির টাকা দাবি করে৷ তাঁরা দিতে অস্বীকার করলে পরিণাম ভালো হবে না বলে শাসায় দুষ্কৃতী দলটি৷ আলমারি ভেঙে ওই টাকা লুঠ করে তারা৷ বাধা দিতে গেলে বাড়ির ছোট জামাইকে রিভলবারের বাঁট দিয়ে মারে। মেজ জামাই বীরেন চৌধুরীকে মাটিতে ফেলে বেধড়ক মারধর করে। অজ্ঞান হয়ে যায় বীরেনবাবু। পরে চিৎকার চেঁচামেচিতে স্থানীয় ছুটে এলে ডাকাতদল বাইকে চেপে পালিয়ে যায়। ঘটনায় এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে লিলুয়া থানার পুলিশ৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here