মহানগর ডেস্ক: শহরের ইতি-উতি ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকে জঞ্জাল, কখনও কখনও আবার তা ঢিপির মত জমেও যায়। সেই স্তূপাকৃতি জঞ্জাল জমার নিরিখে শীর্ষ স্থানে রয়েছে ওড়িশা। জঞ্জাল জমার নিরিখে ‘সেকেন্ড বয়’ হয়েছে উত্তরপ্রদেশ। এবং ‘তৃতীয়’ স্থানে রয়েছে দেশের রাজধানী দিল্লি। সেই দিক দিয়ে এখনও অনেক বেশি ‘পরিচ্ছন্ন’ আমাদের রাজ্য। ২১টি রাজ্যের জঞ্জাল জমার নিরিখে পশ্চিমবঙ্গের স্থান হয়েছে সবার শেষে। সম্প্রতি এমনই তথ্য উঠে এসেছে, কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ(সিপিসিবি)-এর একটি সমীক্ষার রিপোর্টে।

দেশের কোন রাজ্যে জমা জঞ্জালের ফলে দূষণ কতটা ছড়িয়েছে তা জানতেই একটি সমীক্ষা চালায় এই কেন্দ্রীয় দূষণ নিয়ন্ত্রণ সংস্থা। এই সমীক্ষার নাম ছিল, ‘কনট্যামিনেটেড সাইটস ইন ইন্ডিয়া।’ আর এই সমীক্ষার ফলাফল সামনে আসতেই চিন্তার ভাঁজ গভীর হয়েছে পরিবেশকর্মীদের। ২১টি রাজ্যের মোট ২৮০-টি এলাকায় সমীক্ষা চালানো হয়। এই সমীক্ষায় এলাকাগুলিকে দুইটি ভাগে ভাগ করা হয়। প্রথমটি হল ‘নিশ্চিতভাবে দূষিত’ এবং অপরটি ‘সম্ভাব্য দূষিত’।

দূষিত এলাকার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে এই কেন্দ্রীয় সংস্থা জানায়, যে সমস্ত এলাকায় দিনের পর দিন বিপজ্জনক এবং বিষাক্ত পদার্থ জমছে। এই ধরনের পদার্থ মানুষের জীবনকে গভীর সঙ্কটে ফেলতে পারে। এমনই স্তূপাকৃতি দূষিত পদার্থ যেখানে জমা হয়, সেই এলাকাকেই দূষিত এলাকা বলে চিহ্নিত করা হয়।

দূষণ তালিকায় প্রথম হওয়া ওড়িশার দূষিত এলাকার সংখ্যা মোট ২৩টি। উত্তরপ্রদেশে এই সংখ্যা ২১। তৃতীয় স্থানে থাকা দিল্লির সংখ্যা ১১টি। পশ্চিমবঙ্গে এমন দূষিত জায়গার সংখ্যা ১। দিল্লির দূষিত স্থানগুলি হল ভালসাওয়া,গাজীপুর ধাপা অঞ্চল, ঝিলমিল শিল্পাঞ্চল,ওয়াজিরপুর,দিলশাদ গার্ডেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here