news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: উত্তরপূর্ব দিল্লিতে ঘটে যাওয়া সংঘর্ষের তদন্তের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলল দিল্লি কোর্ট। পূর্ব নির্ধারিত সিদ্ধান্তের দিকেই তদন্ত ধাবিত হয়েছে এমনই মন্তব্য করে বিচারপতি জানিয়েছেন, সংঘর্ষে জড়িত অপর পক্ষের বিষয়ে কি তদন্ত করা হয়েছে সে সম্পর্কে কিছু জানাতে পুলিশ ব্যর্থ হয়েছে। ডেপুটি কমিশনার অব পুলিশকে আদালত ন্যায্য তদন্তের নির্দেশ দেয়।

জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ২৪ বছর বয়সি আসিফ ইকবাল তানহার বিচারবিভাগীয় হেফাজতের বিষয়ে শুনানি চলাকালীন দিল্লির পাতিয়ালা হাউজ কোর্ট তার পর্যবেক্ষণে তদন্ত সম্পর্কে আদালতের অভিমত জানায়। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে প্রতিবাদ সভায় প্ররোচনামূলক ভাষণ দেওয়ার অপরাধে আসিফ ইকবালকে সন্ত্রাস বিরোধী বেআইনি কার্যকলাপ প্রতিরোধ আইনে গ্রেফতার করা হয়। ২৭ মে বিচারপতির সামনে হাজির করা হলে ২৬ জুন পর্যন্ত তাকে বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেন।

শুনানি চলাকালীন অতিরিক্ত শেসন জাজ ধর্মেন্দ্র রানা বলেন, কেস ডায়েরি পড়ার পর কিছু অস্বস্তিকর ঘটনা উন্মোচিত হয়েছে। গোটা তদন্তটি মনে হয়েছে, একটি নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছনর লক্ষে ধাবিত হচ্ছে। ইন্সপেক্টর অনিল ও লোকেশ সংঘর্ষের প্রতিপক্ষ সম্পর্কে কী তদন্ত হয়েছে তা জানাতে ব্যর্থ হয়েছে। এই পর্যবেক্ষণের পরিপ্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট ডেপুটি কমিশনার অব পুলিশের তত্বাবধানে ন্যায্য তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয় আদালত থেকে। যদিও প্রতিপক্ষ কে বা কারা সে বিষয়ে আদালত স্পষ্ট করে কিছু জানায়নি।

ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লির একাংশ নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সংঘর্ষে উত্তাল হয়ে ওঠে। সেই সময়ই মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ভারত সফরে এসেছিলেন। সেই সংঘর্ষে কমপক্ষে ৫২ জনের মৃত্যু হয়, আহত হন শতাধিক মানুষ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here