kolkata news

 

নিজস্ব প্রতিনিধি: এবার নিজের সংসদীয় এলাকায় বিক্ষোভের মুখে পড়লেন হুগলির বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায়। শুধু তাই নয় তাকে লক্ষ্য করে কালো পতাকা দেখিয়ে ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দেওয়া হয়। বিজেপি সাংসদকে ঘিরে পরিস্থিতি ঘোরালো হয়ে উঠলে চলে আসে পুলিশ। পরে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে সেখানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। বিজেপির তরফে অভিযোগ করে বলা হয়েছে, তৃণমূল ইচ্ছাকৃত ভাবেই এই ধরনের কাজ করছে। লোকজনকে উস্কে দিয়ে খেপিয়ে তুলেছে। অন্যদিকে, তৃণমূল নেতৃত্ব দাবি করেছে, সাংসদ হওয়ার পর থেকেই এলাকায় আসেননি লকেট চট্টোপাধ্যায়। সেই ক্ষোভ থেকে এলাকার মানুষ স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে তাঁর বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন।

​উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগে হুগলি পাণ্ডুয়া গ্রামীণ হাসপাতালে মারা যান এক যুবক। তার বাড়ির লোকের অভিযোগ ছিল, ভুল চিকিৎসায় মারা গিয়েছেন ওই যুবক। এই অভিযোগে যুবকের পরিবারের লোকজন চিকিৎসক-সহ হাসপাতাল কর্মীদের মারধরের পাশাপাশি ব্যাপক ভাঙচুর চালায়। সেই ঘটনার পর কর্মবিরতি শুরু করেন হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্স-সহ স্বাস্থ্যকর্মীরা। আজ ওই হাসপাতালে যাচ্ছিলেন লকেট চট্টোপাধ্যায়। তিনি সেখানে দেখা করতে চেয়েছিলেন চিকিৎসক, নার্স-সহ স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে। তার আগে পাণ্ডুয়ার জিটি রোডে গাড়ি আটকে বিক্ষোভ দেখানো হয়। কালো পতাকা দেখিয়েছিল ‘গো ব্যাক’ স্লোগান দেওয়া হয়।

​এই ঘটনায় বিজেপি’র তরফে দাবি করে বলা হয়েছে, এলাকার লোকজনকে উস্কে দিয়ে খেপিয়ে তুলেছে তৃণমূল। ইচ্ছাকৃত ভাবে বিজেপি সাংসদকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখিয়েছে তারা। অন্যদিকে, তৃণমূল বলেছে সাংসদ হওয়ার পর থেকেই এলাকায় আসেননি লকেট চট্টোপাধ্যায়। এই এলাকার কোনও মানুষের খোঁজ নেন না তিনি। সেই ক্ষোভ থেকেই সাধারণ মানুষ তার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন। এতে তৃণমূলের কোনও ভূমিকা নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here