national news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনার হানাদারিতে ইতিমধ্যেই ঘুম ছুটেছে গোটা দেশের। ধীরে ধীরে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সম্প্রতি জানা গিয়েছে বলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা কনিকা কাপুর করোনা আক্রান্ত। এই তথ্য প্রকাশ্যে আসার পর ঘুম ছুটেছে দেশের তাবড় তাবড় ভিভিআইপির। কারণ সম্প্রতি কনিকার সঙ্গে এক পার্টিতে যোগ দিয়েছিলেন রাজস্থানের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বসুন্ধরা রাজে, তাঁর পুত্র দুষ্মন্ত সিং ও তাঁর স্ত্রী। আবার রাজ্যসভার সাংসদ দুষ্মন্ত সিংয়ের পাশে বসেছিলেন তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। কনিকা কাপুরের করোনা ধরা পড়ার পর স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে চলে গেলেন এই ভিভিআইপিরা।

জানা গিয়েছে, গত ১৫ মার্চ লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছিলেন কনিকা। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী বিদেশ থেকে কেউ এলে তার ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা। কিন্তু সরকারের এই নির্দেশিকা উড়িয়ে ওই অবস্থাতেই পার্টি করেছিলেন কনিকা। সেখানে যোগ দিয়েছিলেন তাবড় তাবড় নেতা মন্ত্রীরা। এরপর কনিকার করোনা ধরা পড়তেই ঘুম ছুটেছে তাঁদের। এদিন স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে গিয়ে এক টুইট করেছেন বসুন্ধরা রাজে। যেখানে তিনি লেখেন, লখনউতে আমি আমার পুত্র ও পুত্রবধু এক ডিনার পার্টিতে যোগ দিয়েছিলাম। যেখানে উপস্থিত ছিলেন করোনা পজেটিভ কনিকা কাপুর। এটা জানার পরই আমি আমার পুত্র ও পুত্রবধু স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিন নিয়েছি।

তবে পরিস্থিতি এখানেই খান্ত থাকেনি। ওই পার্টির পর বসুন্ধরা পুত্র দুষ্মন্ত সিং সংসদে যোগ দিয়েছিলেন। যেখানে তাঁর পাশে বসেছিলেন রাজ্যসভার সাংসদ ডেরেক ও’ব্রায়েন। ডেরেক বলেন, সংসদে দুষ্মন্তের কিছুটা পিছনে তিনি বসেন। প্রায় আড়াই ঘণ্টা বৈঠকও করেন তিনি। দুষ্মন্তের মাধ্যমে করোনার জীবানু আরও ছড়িয়ে পড়বে না তা কে বলতে পারে। এই প্রশ্ন তুলেই এদিন স্বেচ্ছায় কোয়ারেন্টিনে গিয়েছেন ডেরেক ও’ব্রায়েনও। সব মিলিয়ে কনিকার মাধ্যমে করোনা আরও অনেক বেশি করে ছড়িয়ে পড়তে পারে বলেই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here