ডেস্ক: রবিবার মোহালির মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চতুর্থ ওয়ানডে ম্যাচ বিভীষিকার মতো হয়ে রইল তরুণ উইকেট কিপার ঋষভ পন্থের জন্য। খুব গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেটের পেছনে বেশ বাজে কিছু ভুল করেন তিনি। আর তার সঙ্গে সঙ্গেই গোটা স্টেডিয়ামে ‘ধোনি, ধোনি’ চিৎকার। ঋষভের আত্মবিশ্বাস যে জোর ধাক্কা খেয়েছে তা বলাই বাহুল্য।

অস্ট্রেলিয়ার রান তাড়া করার সময় খুব গুরুত্বপূর্ণ সময়ে দুবার স্ট্যাম্পিংয়ের সুযোগ মিস করেন পন্থ। ৩৯তম ওভারে পিটার হ্যান্ডসকম্ব ও ৪৪তম ওভারে অ্যাস্টন টার্নারকে স্ট্যাম্প আউট করার সহজ সুযোগ মিস করেন তিনি। সেই সুযোগ মিস না করলে ম্যাচের ফলাফল অন্যরকম হতেই পারতো। পাশাপাশি, ধোনির অনুকরণে নো লুক রান আউট করতে গিয়ে তা মিস করেন। পন্থের এই ভুলের জন্য গোটা গ্যালারি জুড়েই ধোনিকে ফেরানোর দাবিতে আওয়াজ তোলা হয়।

 

তবে এই কঠিন সময়ে ঋষভের পাশে দাঁড়িয়েছেন তাঁর ছোটবেলার কোচ তারক সিনহা। অভিজ্ঞ ধোনির সঙ্গে বারবার পন্থের তুলনা করা উচিৎ নয় বলেই মনে করেন তিনি। ‘ধোনির মতোই পন্থ একজন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান। সেই জন্য সবাই ধোনির সঙ্গে ওর তুলনা করছে। কিন্তু আমি মনে করি না এটা উচিৎ হচ্ছে। এর ফলে পন্থ অনেক চাপে পরে যাচ্ছে। ও যখন চাপমুক্ত থাকে, তখন ও নিজের সেরাটা দেয়’, বলেন তিনি।

তারক সিনহা আরও বলেন, ‘ঋষভ পন্থের মতো ধোনিও একসময় ভারতীয় দলে নতুন ছিল। সেই সময় ধোনির সামনে কোনও কিংবদন্তী কিপার ছিল না। পন্থের সামনে ধোনি রয়েছে। ধোনির বদলি হিসাবে ওকে ভাবা হচ্ছে। এটা খুব বড় একটা চাপ। আর বিশ্বের কোন কিপার একটা ক্যাচ বা স্ট্যাম্প মিস করেনা? ধোনিও নিজের কেরিয়ারের শুরুতে এইরকম অনেক সুযোগ মিস করেছে। ভালো ব্যাপার হল, তারপরেও ধোনির উপর আস্থা হারান নি নির্বাচকরা। তার ফলেই আজ ধোনি প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আশা করি, পন্থের উপরও ভরসা হারাবেন না নির্বাচকরা।’

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here