ডেস্ক: ধোনি পত্নীর প্রাণ সংশয়, এমনটাই দাবি সাক্ষী ধোনির। তিনি বলেন, তাঁকে অধিকাংশ সময় বাড়িতে একাই কাটাতে হয়। এছাড়াও কাজের প্রয়োজনে বিভিন্ন জায়গায় তাঁকে নিজেকেই যেতে হয়। তাই সাক্ষী নিরাপত্তার খাতিরে বন্দুকের লাইসেন্সর জন্য আবেদন করেছেন। রাঁচির ম্যাজিস্ট্রেটের কাছেও এই আবেদন জানিয়েছে সাক্ষী। তাঁর আবেদন মঞ্জুর হলেই তিনি পিস্তল বা a.32 রিভালবার রাখতে পারবেন আত্মরক্ষার স্বার্থে।

ভারত অধিনায়কের নিজেরও বন্দুকের লাইসেন্স আছে। এবার পালা সাক্ষী ধোনির। যদিও ধোনির বাড়িতে সারা বছর পুলিশি নিরাপত্তায় মোড়া থাকে। এছাড়াও কোনও বিশেষ ঘটনা ঘটলে তার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। ২০১৭ সালে চ্যাম্পিয়ান্স ট্রফিতে পাকিস্তানের কাছে হারার পরে ধোনির বাড়িতে কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। ধোনি নিজে ‘ওয়াই-ক্যাটাগরির’ নিরাপত্তার মোড়কে থাকেন। এবার খোদ অধিনায়কের স্ত্রীরই দেখা দিল প্রাণ সংশয়, যা বেশ চিন্তনীয় বিষয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here