Parul

মহানগর ডেস্ক: ঐতিহাসিক মারাকানা দেখল আরো একটি ইতিহাস। ব্রাজিলকে হারিয়ে কোপা আমেরিকা আর্জেন্টিনার। ক্লাব ফুটবলের পর অবশেষে জাতীয় দলের জার্সি গায়ে সাফল্য পেলেন লিওনেল মেসি। রুপোলী ট্রফি হাতে আবেগে বসেছেন তিনি। কিন্তু তিনি একজন ক্যাপ্টেন। জয়ের মুকুট পরিয়ে দিলেন সতীর্থদের।

ads

ম্যাচ শেষে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। তিনি আজকের ম্যাচের হিরো। তাঁর করা গোলে অধরা স্বপ্ন জয়ের মেসির। ম্যাচ শুরুর আগে বার্সেলোনার তারকা জানতেন টিম গেম ছাড়া সম্ভব নয় ব্রাজিলকে হারানো। মাঠে নামার আগে তাই মারিয়াদের জুগিয়েছিলেন আত্মবিশ্বাস। ‘মেসি বলেছিল এটা আমার ফাইনাল’, উচ্ছ্বাস ধরে রেখে বললেন মারিয়া।

২০১৬ সালের কোপা আমেরিকা জয়ের খুব কাছে এসে গিয়েছিলো আর্জেন্টিনা। ফাইনাল ম্যাচে পৌঁছেও সে’বার ছোঁয়া হয়নি শিরোপা। চোটের কারণে সে’দিন খেলতে পারেননি মারিয়া। আক্ষেপ জমেছিল ভিতরে ভিতরে। এবারের কোপায় আর্জেন্টিনা যেন বদলে যাওয়া একটি দল। ট্রফি ক্ষুধা নিয়ে প্রত্যেক ম্যাচে নেমেছিলেন নীল-সাদা জার্সিধারীরা। ‘হয় এসপার নয় ওসপার’ মন্ত্র নিয়ে অপরাজিত থেকেছেন টুর্ণামেন্টে। পারফরম্যান্সের বিচারে ব্রাজিলের থেকে কিছুটা পিছিয়ে ছিল আর্জেন্টিনা। সাম্প্রতিক ফর্মে নিরিখেও সেলেকাওরা টেক্কা দিচ্ছিলেন  স্কালোনি ব্রিগেডকে। ফুটবলপ্রেমীরা জানতেন এ ম্যাচে হয় না কোনও অংকের বিচার। নার্ভ সামলানোর উপর অনেকটা নির্ভর করে চেক অ্যান্ড মেড।

‘মেসি আমাকে বলেছিল তুমি যে ম্যাচটা খেলতে পারোনি, এটা সেই ম্যাচটারই পুনরাবৃত্তি। এটা তোমার ফাইনাল’, বলেছেন দি মারিয়া। ‘আমি আমার মেয়ে, আমার স্ত্রী, আমার অভিভাবকদের জন্য আজ খুব খুশি।  যারা আমাদের নিরন্তর সমর্থন করে গিয়েছেন, যারা উপস্থিত ছিলেন এ মারাকানার গ্যালারিতে, তাদের প্রত্যেকের জন্য আজ আমি উচ্ছ্বসিত। বিশ্বকাপ আসছে। তার আগে এই মুহূর্ত মনোবল যোগাবে আমাদের।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here