kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, মেদিনীপুর: প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণার পর মর্নিং ওয়াক দিয়ে শুরু করেছিলেন নির্বাচনী প্রচার, এবার নিজের জন্মদিনে শিশুদের চকলেট বিলি করে প্রচার সারলেন মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষ৷ বিস্ফোরক মন্তব্য ও হুমকির রেকর্ড দেখলে অনুব্রতর থেকে কোনও অংশে কম জান না মেদিনীপুরের এই বিজেপি প্রার্থী৷ কখনও মুখ্যমন্ত্রীকে শাড়ি পরা হিটলার বলে কটাক্ষ, তো কখনও পুলিশকে প্যাক করে দেওয়ার হুমকি, আবার কখনও বা মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী না পেয়ে নায়িকাদের এনে নাচ্ছাচ্ছেন, দিলীপের একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্যে তাঁকে নির্বাচনের কমিশনের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে৷ তবুও বদলায়নি মুখের ভাষা৷ আর এভাবেই বিরোধীদের পাখির চোখ করে বিতর্কিত নানান মন্তব্যের মাধ্যমেই তিনি প্রচারে ঝড় তুলেছেন৷ শুক্রবার জন্মদিনের দিনও প্রচারে বেরিয়ে শাসকদলের সন্ত্রাস প্রসঙ্গ টেনে আক্রমণ শানিয়ে তিনি বলেন, তৃণমূলের এতদিনের রিগিং করার অভ্যেস৷ অল্পস্বল্প তো হবেই৷

এবার সাধারণ মানুষ রাস্তায় নেমে ভোট করবে বলে জানান তিনি৷ এদিন বিরোধীতার সুর চড়িয়ে তিনি বলেন, গণতন্ত্র বাঁচাতে মানুষ রাস্তায় নেমে গুন্ডাদের ধরছে৷ নিশ্চিত যে এবার নির্বাচনে বেশি গণ্ডগোল করতে পারবে না৷ এদিন যেসব বুথে এই দুই দফায় গণ্ডগোল হয়েছে তার জন্য তিনি রাজ্য পুলিশকে দায়ি করে বলেন, যেসব বুথে রাজ্য পুলিশ রয়েছে সেখানেই গণ্ডগোল হচ্ছে৷ একইসঙ্গে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি জানান তিনি৷ এদিন শাসকদলের উদ্দেশ্যে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে তিনি বলেন, মেদিনীপুরে রিগিং করার হিম্মত নেই৷ বিজেপি কর্মীরা সামাল দেওয়াল জন্য যথেষ্ট৷

ফোর্স ফোর্সের কাজ করবে, আমরা আমাদের কাজ করব, জানান দিলীপ ঘোষ৷ তবুও সাধারণ মানুষের সাহস বাড়াতে কেন্দ্রীয় বাহিনীর দাবি জানান তিনি৷ এদিন ৫৪ তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে সকালে সামান্য পুজো সেরে রাস্তায় বের হওয়ার আগে বিজেপি কর্মীরা নারকেল ফাটিয়ে রাজ্য সভাপতির জন্মদিন পালন করেন৷ পরে নিজের কার্যালয় থেকে বেরিয়ে খড়গপুর পুরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডে প্রচার সারেন দিলীপ ঘোষ৷ দিনভর খড়্গপুর শহরের আশে পাশে প্রচার সেরে বিকেলে তালবাগিচা এলাকাতে প্রচারে বের হয়ে একটি দলীয় কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন৷ সেখানেই ক্লাবের সদস্য ও কর্মীরা কেক কেটে তাঁর জন্মদিন পালন করেন ৷

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here