Parul

 

ads

মহানগর ডেস্ক: ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের মধ্যে বিক্ষোভের আঁচ পড়েছে রাজনৈতিক মহলে। এ ব্যাপারে নিজের মতামত ব্যক্ত করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তিনি জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর ভরসা করেই এই দিন দেখতে হচ্ছে ইস্টবেঙ্গলকে।

 

বুধবার লেসলি ক্লডিয়াস সরনী এলাকায় লাল-হলুদ সমর্থকদের মধ্যে ধুন্ধুমার কাণ্ড। শতাব্দী প্রাচীন ক্লাবের ইতিহাসে এমন উদাহরণ আর দ্বিতীয় নেই। স্বভাবতই মন খারাপ ইস্টবেঙ্গলের দীর্ঘদিনের সমর্থকদের। এ ব্যাপারে সামাজিক মাধ্যমে একটি ভিডিও বার্তা পোস্ট করেছেন দিলীপ ঘোষ।

তিনি বলেছেন, “ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের সমর্থকদের নিজেদের মধ্যে মারামারি করতে দেখে মনটা খুব খারাপ লাগল। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর ভরসা করে আজকে তাদের এই দুর্দশা। আইএসএল-এ ক্লাবকে তুলে দেবেন বলে তিনি কথা দিয়েছেন। এবং হাত ধরে নিয়ে গিয়েছিলেন। একটি কোম্পানির সঙ্গে ক্লাবকে তিনি সই করতে বাধ্য করেছিলেন।”

“হয়তো তখন নির্বাচন ছিল। নবান্নে নিয়ে গিয়ে এগ্রিমেন্ট করিয়েছিলেন। সেই এগ্রিমেন্ট আজকে ডেথ ওয়ারেন্টে পরিণত হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজনৈতিক বাধ্যবাধকতা ছিল তাই তিনি করেছেন। কোটি কোটি মানুষের সেন্টিমেন্টকে নিয়ে তিনি খেলা করেছেন। রাজনৈতিক খেলা। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত ক্লাবকে একটি অন্ধকার গলিতে পৌঁছে গিয়েছে। কালকে কী হবে কেউ জানে না।”

“ক্লাব কি আগামী বছর আইএসএল খেলতে পারবে? ক্লাব কি আগামী বছর প্লেয়ারকে কিনতে পারবে? এ ধরনের প্রশ্ন সামনে তার সমর্থকরা দাঁড়িয়ে আছেন। এই এগ্রিমেন্ট ক্লাব যদি সই করে। তাহলে ক্লাব আর ক্লাব থাকবে না। একটা কোম্পানি হয়ে যাবে। সমর্থক, ক্লাবের মেম্বার, কেউ ক্লাবে ঢুকতে পারবেন না…।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here