news bengali

নিজস্ব প্রতিনিধি: ‘বিধায়কের পকেটে সুইসাইড-নোট পুলিশই ঢুকিয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আগে থেকেই তৈরী ছিল।’ হেমতাবাদের বিধায়কের মৃত্যুতে এবার এমনই বিস্ফোরক দাবি করলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন এই গোটা ঘটনাটিকে ‘খুন’ বলেই উল্লেখ করেন তিনি। ‘যার নেপথ্যে রয়েছে শাসক দল’। তাই বর্তমান সরকার যাতে বেশিদিন না চলে সেই আবেদন রাষ্টপতির কাছে করা হয়েছে বলে জানান দিলীপ ঘোষ।

সময় যতই পেরিয়েছে বিধায়কের মৃত্যু নিয়ে ততই উত্তপ্ত হয়েছে রাজ্য রাজনীতি। এরই মধ্যে মঙ্গলবার প্রকাশ্যে আসে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট। সেই রিপোর্টে প্রাথমিকভাবে গোটা ঘটনাটি আত্মহত্যা বলেই উল্লেখ করা হয়েছে। যদিও এই রিপোর্ট মানতে নারাজ বঙ্গ বিজেপি। এদিন এই গোটা ঘটনাটিকে পূর্বপরিকল্পিত বলেই উল্লেখ করেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি।

এই প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘আগের থেকে পটভূমি আলোচনা করেই করা হয়েছে। দুর্ঘটনায় মৃত হলে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেতে কালঘাম ছুটে যায় মানুষের। এক্ষেত্রে এক রাতের মধ্যে কি করে রিপোর্ট চলে এল! এতে বোঝাই যাচ্ছে সবকিছু আগে থেকে রেডি ছিল। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আগে থেকেই তৈরী ছিল। পুলিশই সুইসাইড-নোট ঢুকিয়েছে বিধায়কের পকেটে। পুরো বিষয়টাই পূর্বপরিকল্পিত।’

এদিকে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট অস্বীকার করায় পরোক্ষভাবে চিকিৎসকদের অপমান করা হচ্ছে বলে এদিন মন্তব্য করেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এর পাশাপাশি, সিবিআই তদন্ত চেয়ে রাজ্য পুলিশদের অপমান করা হচ্ছে বলেই এদের মত প্রকাশ করেন পুরমন্ত্রী। অন্যদিকে, ‘ববি হাকিমের স্মৃতিশক্তি লোপ পেয়েছে’ বলে পাল্টা কটাক্ষের জবাব ছুঁড়ে দেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। তিনি বলেন, ‘ববি হাকিমের স্মৃতিশক্তি হয়তো লোপ পেয়েছে, তিনি ভুলে গেছেন একসময় কুকুর মরলেও মমতা ব্যানার্জি সিবিআই তদন্ত চাইতেন। সরকারের আত্মহত্যা তত্ত্ব বিশ্বাসযোগ্য নয়। তদন্ত করলে সব উঠে আসবে।’

তবে শুধুমাত্র রাজ্যর শাসক দলের বিরুদ্ধেই সরব হননি দিলীপ ঘোষ। এদিন রাজ্যের বিচারব্যবস্থার বিরুদ্ধেও ফের বেফাঁস মন্তব্যে জড়ান রাজ্য বিজেপি সভাপতি। তিনি বলেন, ‘এখানকার আদালতের উপর ভরসা নেই মানুষের। দিনের পর দিন আদালতে শুনানি হয় না। জাজমেন্ট দিতে গেলে হাত কেঁপে যায়। সুপ্রিম কোর্টে আমরা যেতে পারি।’ তাঁর কথায়, ‘এর আগেও বিভিন্ন বিষয়ে রাজ্য সরকারের ব্যতিক্রমী ভূমিকা দেখা গিয়েছে। আগেও করোনা সময়ও মুখ্যসচিব একরকম বলতেন, মুখ্যমন্ত্রী আর একরকম বলতেন, স্বরাষ্ট্রসচিব আর একরকম বলতেন এগুলো আমরা আগেও দেখেছি এখনো দেখছি। আগেও বিভিন্ন কারণে দোষীদের সাজা পায়নি। এখনো পাচ্ছে না। কারণ সরকারের পলিসি হচ্ছে বিরোধীদের হত্যা করা। তাই আমরা চাই সিবিআই তদন্ত হোক।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here