নিজস্ব প্রতিবেদক, ব্যারাকপুর: আমডাঙায় তৃণমূল বিরোধীশূন্য পঞ্চায়েত গড়তে চাইছে সে কথা আগেই জানিয়েছেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পাশাপাশি মরিচায় বিজেপির পঞ্চায়েত গড়ার বিষয়টিও স্পষ্ট করে দিয়েছিলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি। বুধবার ফের একবার আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে আমডাঙায় পঞ্চায়েত গড়ার কথা জানালেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। বারাসাতের বিশেষ আদালতে হাজিরা দিতে এসে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানান, ”সিপিএম সদস্যরা বিজেপিতে আসতে চাইছে। তবে এখনই ওদের দলে নেওয়া হচ্ছে না। তারাবেড়িয়ার ঘটনার পর বিরোধী সদস্যরা এখন আমাদের সেল্টারে আছে।” শাষকদল দূর্বল হয়ে পড়েছে, তাই বিরোধীদের মামলা মোকদ্দমা জড়িয়ে দিচ্ছে, বলে শাসকদলকে কটাক্ষ করেন দিলীপ ঘোষ।

এ রাজ্যে গনতন্ত্র নেই, তাই পঞ্চায়েতে বিরোধীদের মনোনয়ন জমা দিতে দেয়নি বলে অভিযোগ দিলীপ ঘোষের। তিনি এও দাবি করেন ত্রিপুরাতে পঞ্চায়েতের উপনির্বাচনে এ রাজ্যের মত কোন ব্যক্তিকে মনোনয়ন জমা দিতে বাধা দেওয়া হয়নি। এদিন আদালতে দিলীপ ঘোষের আইনজীবী কে হবে তা নিয়ে সমস্যা হয়। বিচারক নির্দেশ দেন আগে ঠিক করুন কে আইনজীবী তারপর মামলার শুনানী হবে। প্রায় ২০ মিনিট পর বিচারক মামলা শুনে দিলীপ ঘোষ, লকেট চ্যাটার্জী, রুপা গাঙ্গুলি রাজু মুখার্জী ও শমীক ভট্টাচার্য কে এক হাজার টাকার বন্ডে জামিন দেন। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর বিদেশ সফর ও প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফর কে পার্থক্য বোঝাতে গিয়ে বলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী স্বপ্নের ফেরীওয়ালা বলেন বিজেপি নেত্রী রূপা গাঙ্গুলী। পাশাপাশি গত সাড়ে চার বছরে ভারতকে বিদেশ থেকে কোন ধার নিতে হয়নি দেশ চালাবার জন্য। এদিন এই কথা বলে মোদির সাফল্যকেও তুলে ধরেন রূপা গাঙ্গুলী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here