নিজস্ব প্রতিবেদক, কলকাতা: রাজ্যের ৪২টি আসনের মধ্যে কমপক্ষে ২৩টি আসন জেতার চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন বলে কথা। শুধু লুচিতে কি আর মন ভরে? শেষ পাতে মিষ্টিও চাই তো। তাই লোকসভা নির্বাচনের ফলপ্রকাশের পর লুচির সঙ্গে হালুয়ার ব্যবস্থাও করে রাখা হবে। জানিয়ে দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

এদিন বিজেপির সদর দফতরে এক সাংবাদিক বৈঠকে উপস্থিত হয়ে এমনটাই বললেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তাঁর চ্যালেঞ্জ, এই রাজ্য থেকে ২৩টি আসন তারা যেভাবেই হোক দখল করবেন। তা সে দল ভেঙে হোক, বা জার্সি বদল করে। জেতার জন্য যে বিজেপি কতটা মরিয়া হয়ে উঠেছে তা এদিনই বারংবার প্রমাণিত হয় দিলীপবাবুর কথায়। তবে ২৩টি আসন জয় তাদের লক্ষ্য হলেও কোন আসনগুলিতে বিজেপির জয় নিশ্চিত, তা খোলসা করে বলতে নারাজ বিজেপি সভাপতি। তাঁর মতে, যে কোনও আসনেই জয়লাভ হতে পারে। তবে গত লোকসভায় যেখানে বিজেপি ভালো ফল করেছিল সেই আসনগুলি নিয়ে বুক বাঁধছেন তিনি। বিজেপি সভাপতির কথায়, ‘উত্তরবঙ্গের আটটা আসনেই সম্ভাবনা রয়েছে। পঞ্চায়েতে দক্ষিণবঙ্গের জঙ্গলমহলে সব আসনে আমরা ভালো ফল করেছিলাম। অনেক জায়গায় নির্বাচন হয়নি বলে প্রতিফলন দেখা যায়নি। যার মধ্যে নদীয়া আছে। হুগলি আছে, পুরো মেদিনীপুর আছে, কলকাতা আছে। এই সব আসনে বিজেপি এখন জেতার মতো অবস্থায় আছে।’

এবারের লোকসভা ভোটে কি প্রার্থী হতে দেখা যাবে দিলীপবাবুকে। সে প্রশ্ন করা হলে অবশ্য দলের উপরই সিদ্ধান্তের ভার চাপিয়ে দেন তিনি। প্রসঙ্গত, এদিন রাতেই দিল্লির বিমানে বসতে চলেছেন দিলীপবাবু। মনে করা হচ্ছে, সম্ভবত আগামিকালই প্রথম দফায় প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতে পারে বিজেপি। হাই কমান্ডের সঙ্গে তাঁর বৈঠকের পরই নেওয়া হবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। তার আগে অবশ্য ২৩টি আসনের দাবি ঠুকে রাজনৈতিক উত্তাপ বাড়িয়ে রাখলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here