kolkata news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আবারও মুখ খুললেন দিলীপ ঘোষ করোনা ইস্যুতে জ্যোতিষ শাস্ত্র টেনে এনে মারণ ভাইরাসের ব্যাখ্যা দিলেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে হাসাহাসি হতে পারেন জেনেও দৃপ্ত কন্ঠে জানিয়ে দিলেন, শনির যে বছর দাপাদাপি একটু বেশি থাকে তখনই এমন ভাইরাসের আক্রমণ দেখা দেয়। তবে এর থেকে কীভাবে মুক্তি পাওয়া সম্ভব সেটাও বুঝিয়ে দিলেন স্পষ্ট করে।

এদিন সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে দিলীপ ঘোষ বলেন, আমি এক মনসা পুজোতে গিয়ে বলেছিলাম আমাদের দেশের থানকুনি পাতা, নিম পাতা এইসব খেয়েই আমরা বড় হয়েছি এই সমস্ত জিনিস মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। এরপরই তিনি বলেন, এবার আমি যেটা বলবো তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক হাসাহাসি হবে তবুও, আমাদের পুরানে ভাইরাসের কথা বলা হয়েছে। যে বছর শনির প্রকোপ বাড়ে তখনই এই ধরনের ভাইরাসের আবির্ভাব হয়। তবে চিন্তার কোন কারণ নেই ৩,৪ মাসের বেশি থাকবে না এই ভাইরাস। ২৫ মার্চ এর প্রকোপ সবচেয়ে বেশি হবে। পরে শান্ত হবে পরিস্থিতি। আমরা প্রাকৃতিক চিকিৎসা দীর্ঘদিন বিশ্বাস করে এসেছি। এবং এই গুলিতে যারা বিশ্বাস করেন তারা দিব্যি সুস্থ আছেন গরম পড়লে নিমপাতা, নিমফুল ভেজে খান। অতি আধুনিক হতে গিয়ে ছেলেমেয়েদের সর্বনাশ করবেন না।

পাশাপাশি কলকাতায় বিমান পরিষেবা বন্ধ করার যে আর্জি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে করেছেন সে প্রসঙ্গেও মুখ খোলেন দিলীপ ঘোষ। বলেন, বিমান পরিষেবা বন্ধ করে দিলেই তো সমস্যার সমাধান হবে না, বিদেশে থাকা এ দেশের নাগরিকদেরও ফেরাতে হবে। যারা একথা বলছেন তাদের আমলার ছেলেকেইতো পায়ের তলা দিয়ে ঢুকিয়ে দেশে নিয়ে চলে এসেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here