ডেস্ক: লোকসভা ভোটের নির্ঘন্ট প্রকাশের পর একের পর এক রাজনৈতিক দলগুলির প্রার্থী তালিকা সামনে আসতে শুরু করায় এপ্রিলের নির্বাচন যেন এখন আরও উত্তেজনা সৃষ্টি করছে। কেন্দ্রের ক্ষমতা ধরে রাখার পাশাপাশি বাংলাতেও নিজেদের ঘাঁটি গাড়তে প্রস্তুতি নিচ্ছে বিজেপি। পরপর তৃণমূলের ‘ঘরের লোকদের’ নিয়ে টানাটানি করে কিছুটা সফলও হয়েছে বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। তবে শাসকদলকে পুরোপুরি ‘শেষ’ করতে সব রকমেরই চেষ্টা করছে তারা। এই প্রেক্ষিতেই স্বচ্ছ ভোট করাতে রাজ্যের প্রতিটি বুথকে স্পর্শকাতর এবং প্রতি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করার আর্জি জানিয়েছিল ভারতীয় জনতা পার্টি। এর জন্য গতকাল বিজেপির সমালোচনা করেন তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। এবার তাঁকেই রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

বিজেপির আর্জি প্রসঙ্গে মদন মিত্র বলেছিলেন, বিজেপি রাজ্য অশান্তি পাকাতে চাইছে। প্রতিটা বুথে গণ্ডগোল করে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে উদ্যোগী হয়েছে তারা। তবে বিজেপির কোনওরকম গুণ্ডামি বরদাস্ত করবে না প্রশাসন, গুণ্ডামি করলে তার জবাব পেতেই হবে। এই মন্তব্যের পর দিলীপ ঘোষ হুঁশিয়ারিস্বরূপ বলেন, যদি বিজেপি হিংসা চাইতো তবে মদন মিত্র বাড়িতে থাকতে পারতেন না, বাড়ির বাইরেও বেরতে পারবেন না। হিংসা চাইলে মদন মিত্র বলুন, তারা তৈরি! দিলীপ আরও বলেন, বিজেপিকে উল্টোপাল্টা না বলে রাস্তায় নেমে লড়াই করুক তৃণমূল। তবে সেটার দম নেই বলে কটাক্ষ করেন তিনি। বলেন, কোমরে ওতো জোর নেই যে, বিজেপির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে লড়বেন তারা।

 

বিজেপি তৃণমূল লড়াই প্রসঙ্গে অর্জুন সিং-এর বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গও টেনে আনেন দিলীপ ঘোষ। মন্তব্য করেন, অর্জুন ঘোষের বিজেপিতে যোগদান অত্যন্ত স্বাভাবিক ব্যাপার। শাসকদল তৃণমূলের ধস আরও বেশি পরিমাণ স্পষ্ট হচ্ছে। একদিকে বাংলায় বিজেপি জয় অব্যহত, অপরদিকে তৃণমূলের কঙ্কালসার চেহারা প্রকাশ পাচ্ছে। লড়াই করার আগে ক্ষতবিক্ষত হচ্ছে বাংলার সরকার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here