news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: মাঝে বাকি আর দু’দিন। রবিবার পোহালেই আরেক দফার ভোট। কিন্তু তার আগেই ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল বীরভূমে। চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে বোলপুর পুরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডে।

এদিন সকালেই স্থানীয় বিজেপি নেতা নরেশ ঘোষের বিরুদ্ধে ভোটারদের টাকা দিয়ে প্রভাবিত করার অভিযোগ তোলেন বেশ কিছু তৃণমূল সমর্থক। খবর চাউর হতেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে গ্রেফতার করে অভিযুক্ত বিজেপি নেতাকে। ধৃত নরেশ ঘোষ পাল্টা অভিযোগ তুলে বলে, তাঁকে মিথ্যা কেসে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়েছেন বোলপুর থানার আইসি সঞ্জীব চক্রবর্তী।

আজ সকালেই বিজেপি নেতা নরেশ ঘোষের বিরুদ্ধে তৃণমূল সমর্থকরা অভিযোগ তোলে, বাড়ি বাড়ি টাকা বিলি করে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন তিনি। এরপরই তৃণমূল এবং বিজেপি দুই পক্ষের মধ্যে শুরু হয় তুমুল তর্ক-বিতর্ক। ক্রমেই পরিস্থিতি উত্তেজিত হতে শুরু করে। কথা কাটাকাটি চলার মাঝেই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বোলপুর থানার পুলিশ। পুলিশ বাহিনীর সঙ্গে ছিলেন থানার আইসি সঞ্জীব চক্রবর্তীও।

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে বিজেপি নেতা নরেশ ঘোষকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ সূত্রে খবর, ধৃত বিজেপি নেতার বাড়ি থেকে কুড়ি হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। কিন্তু বিজেপি নেতার দাবি, তাঁকে মিথ্যা কেসে ফাঁসিয়ে জোর করে থানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এই নিয়ে বচসা চলার মাঝেই রুদ্রমূর্তি ধারণ করেন বোলপুর থানার আইসি সঞ্জীব চক্রবর্তী। বিজেপি ওই নেতাকে প্রকাশ্যে মিথ্যা কেসে ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেন বোলপুর থানার আইসি।

চোখ রাঙিয়ে আঙুল দেখিয়ে নরেশ ঘোষকে হুমকি দিয়ে তিনি বলেন, “এই শোনো, আমার অফিসার দেখেছে। তুমি রাজনীতি করো বলে… আমার ইউনিফর্মের দাম আছে। তুমি যত বড়ই পার্টি করো, তুমি কী পার্টি করো আমি জানিনা। অফিসার শেষ করে তোমার কাছে টাকাটা পেয়েছে, আবার মিথ্যা কথা বলছি, তুমি দাঁড়িয়ে আমাকে মিথ্যুক বলছো। এ কায়দা কোরো না। তোমার কাছে কী কী পাওয়া গেছে লিখে দেবো। তোমার দিলীপ ঘোষও বাঁচাতে পারবে না। তুমি জানো না, ৩৮ বছর চাকরি করছি। ইউনিফর্মটার দাম আছে। লিসেন টু মি, তুমি আগে আমার কথা শোনো।…… দিলীপ, সুদীপ, রাম্বা, সাম্বা কেউ বাঁচাতে পারবে না।…. তোমার কাছ থেকে গাঁজা পাওয়া যায়নি, তোমার কাছ থেকে মদও পাওয়া যায়নি। তুমি আমার পুলিশকর্মীকে মেরেছে তাই অ্যারেস্ট করছি।……।।”” এরপরই কার্যত টেনে হেঁচড়ে ওই বিজেপি নেতা নরেশ ঘোষকে গাড়িতে তোলেন থানার আইসি সঞ্জীব চক্রবর্তী।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here