ডেস্ক: পরমব্রত, স্বস্তিকা এবং সৃজিত৷ টলিপাড়ার প্রথমসারীর পরিচালক এবং অভিনেতাদের কথা বলতে গেলে প্রথমেই উঠে আসে এই তিন ব্যক্তিত্বের নাম৷ তবে এই তিনজনের ব্যক্তিগত সম্পর্ক একদমই তলানীতে এসে ঠেকেছে৷ সমালোচকরা একপ্রকার ভেবেই নিয়েছিলেন যে এই তিনজনকে একসঙ্গে বড়পর্দায় কাজ করতে দেখা যাবে না৷ কিন্তু হঠাৎই সকলকে চমকে দিলেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়৷

সকলেই জানেন পরিচালকের আগামী বেশকিছু প্রজেক্টের মধ্যে অন্যতম হল উত্তমকুমারের কালজয়ী ছবি ‘চৌরঙ্গী’-র রিমেক৷ শংকরের বিখ্যাত এই উপন্যাসকে এক সময় পরিচালক পিনাকীভূষণ মুখোপাধ্যায় রূপোলী পর্দায় তুলে ধরেছিলেন৷ আর সেই ছবিকে বর্তমান প্রেক্ষাপটে ফেলে আলাদা কিছু করতে চাইছিলেন সৃজিত৷ যে কারণে সিনেমার নাম পাল্টে ফেলে রাখা হয় ‘শাহজাহান রিজেন্সি’৷

কিন্তু ঘোষনা হওয়ার পর থেকে একের পর এক বাঁধার সম্মুখীন হতে থাকে পরিচালক মহাশয়৷ প্রথমে অভিনেত্রী জয়া এহসান প্রজেক্টটি থেকে বেরিয়ে আসেন৷ সূত্রের খবর, কোন একটি বিশেষ কারনেই জয়া প্রজেক্টটি থেকে বেরিয়ে আসতে বাধ্য হন৷ এরপর দ্বিতীয় অঘটনটা একদমই অপ্রত্যাশিত ছিল৷ মুখ্যভূমিকায় স্যাটা বোস চরিত্রে দেখতে পাওয়ার কথা ছিল অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে৷ তিনিও বেরিয়ে আসেন ছবিটি থেকে৷ পাশাপাশি যীশু সেনগুপ্তও ডেট নিয়ে সমস্যা এবং শারীরিক অসুস্থতার জেরে পিছু হটতে বাধ্য হন৷

এই কয়েকটি অঘটনে বেশ সমস্যায় পড়েন সৃজিত৷ অবশেষে সম্প্রতি সেই সমস্যার সমাধান হল৷ অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় রাজী হলেন সৃজিতের সঙ্গে কাজ করতে৷ অপরদিকে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কেও অফার দেওয়ার পর সৃজিতকে ফিরিয়ে দেননি৷ অন্যদিকে যীশুর জায়গায় দেখা যেতে পারে অভিনেতা অনির্বান ভট্টাচার্যকে৷ এছাড়াও একটি বিশেষ চরিত্রে দেখা যাবে টলিপাড়ার বিশিষ্ট অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে৷

এছাড়়া বাকি চরিত্রগুলি আপাতত যাদের থাকার কথা তাঁরাই রয়েছে৷ এই তিন অভিনেতা ছাড়াও রয়েছেন আবীর চট্টোপাধ্যায়, মমতা শংকর, অঞ্জন দত্ত, রুদ্রনীল ঘোষ, বাবুল সুপ্রিয়, সুজয় প্রসাদ চট্টোপাধ্যায় ঋত্বিকা সেনের মতো অভিনেতারা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here