মহানগর ডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে দেশের বিভিন্ন জায়গায় চলছে লকডাউন, কারফিউ। কিছু কিছু রাজ্যে চলছে পূর্ণ লকডাউন। এতদিন গরিবদের কথা মাথায় রেখে সম্পূর্ণ লকডাউন জারি না করলেও, সম্প্রতি লকডাউন জারি করেছেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। সঙ্গে জারি রয়েছে কড়া নিষেধাজ্ঞা। এই পরিস্থিতিতে রুজি রোজগারের দায়ে সবজি নিয়ে বাজারে বসেছিলেন এক বিক্রেতা। তাঁর ঝুড়িতে লাথি মারার দায়ে বরখাস্ত হলেন ফাগোয়ারার স্টেশন হাউস অফিসার নভদ্বীপ সিং।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়। যেখানে দেখা যাচ্ছে ফাগোয়ারার স্টেশন হাউস অফিসার নভদ্বীপ সিং বাজারের এক সবজি বিক্রেতার ঝুড়িতে লাথি মারছেন। এরপরই পাঞ্জাবের ডিজিপি দিনকর গুপ্তা এই অফিসারকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করেন। ডিজিপি এই ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োটি শেয়ার করে একটি টুইট করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘এই ধরনের আচরণ একেবারেই লজ্জাজনক এবং অগ্রহণযোগ্য। আমি বরখাস্ত করেছি এই অফিসারকে। এই ধরনের দুর্ব্যবহার সহ্য করা হবে না। যারা এরকম দুর্ব্যবহার করেন তাঁদের গুরুতর পরিণতির মুখোমুখি হতে হবে।’

এই ঘটনায় কাপূর্থালার সিনিয়র পুলিশ সুপার কানওয়ারদ্বীপ কৌর নভদ্বীপের আচরণের তীব্র নিন্দা করেছেন। তিনি বলেছেন, এই ধরনের আচরণ গোটা পুলিশবাহিনীর নাম খারাপ করে। এমনকী তিনি অভিযুক্ত পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে বলেও জানিয়েছেন। ইতিমধ্যেই কানওয়ারদ্বীপ কৌর এবং কাপূর্থালা পুলিশের বাকি কর্মকর্তারা সবজি বিক্রেতা কে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার জন্য তাঁদের বেতন থেকে সামান্য পরিমাণ টাকা একত্রিত করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here