নিজস্ব প্রতিবেদক, পুরুলিয়া: পুরুলিয়া জেলার বলরামপুর ব্লকে বিজেপির তিনজন কর্মীর রহস্য মৃত্যু কান্ডে টানা সাতদিন অবস্থান বিক্ষোভ, প্রতিবাদ সভার পরেও থেমে যাননি জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। ৫ই জুন থেকে ৮ইজুন পর্যন্ত পুরুলিয়া জেলা শাসকের দফতরের সামনে চলেছিল তাদের অবস্থান বিক্ষোভ। তারপর ৯ই জুন থেকে ১১ই জুন পর্যন্ত টানা তিন দিন ধরে বলরামপুরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে চলেছে সেই অবস্থান বিক্ষোভ। সর্বশেষে এক প্রতিবাদ সভা দিয়ে শেষ হয়েছে তাদের সেই অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি। প্রতিদিনই রাজ্য নেতৃত্বের তরফে কেউ না কেউ উপস্থিত থেকে এই কর্মসুচি সম্পন্ন হওয়ার পরই ঘোষণা করা হয় ১৩ই জুন পুরুলিয়া জেলার প্রতিটি ব্লকে বিক্ষোভ প্রদর্শন করা হবে।

সেই মতো বুধবার জেলার ২০টি ব্লকেই আয়োজিত হল বিক্ষোভ কর্মসুচি। হুড়া ব্লকে বিক্ষোভে নেতৃত্ব দেন বিজেপি নেতা ফাল্গুনি চ্যাটার্জী, বিজেপি’র ওবিসি মোর্চার নেতা প্রদীপ মাহাতো, দলের সংখ্যালঘু সেলের পুরুলিয়া জেলা সভাপতি আলীম আনসারী সহ আরও অনেকে। অন্যদিকে বিজেপির পুরুলিয়া জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তীর নেতৃত্বে এদিন দলেরই একটি প্রতিনিধি দল জেলা শাসকের সঙ্গে দেখা করে স্বারকলিপি জমা দেন। কিন্তু পুরুলিয়ার জেলা শাসক তার কার্যালয়ে উপস্থিত থেকেও দেখা করেননি ওই প্রতিনিধি দলের সঙ্গে। তার জেরে উপস্থিত সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বলেন,’দূর্নীতিতে যুক্ত হয়ে গেছেন জেলা শাসক। উনি কথা বলার সাহস টুকুও পাচ্ছেন না। উনি আমাদেরকে এসডিওর কাছে যেতে বলেন। উনি জানেন না। আসলে প্রম্পটি ডিএম হলে এরকই হয়।'”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here