Parul

মহানগর ডেস্ক: আগামী মাসেই এক দফায় তামিলনাড়ুতে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে জোটসঙ্গী ডিএমকের সঙ্গে আসন রফা হল কংগ্রেসের। কংগ্রেস তামিলনাড়ু থেকে ৩০টি আসন চেয়েছিল। ডিএমকে কংগ্রেসকে তামিলনাড়ু বিধানসভা নির্বাচনে ২৫টি আসন ও রাজ্যসভার একটি আসন ছাড়তে সম্মতি জানিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ads

শনিবার সন্ধের সময় কংগ্রেসের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সঙ্গে ডিএমকের নেতৃত্বের বৈঠক হয়। ওই বৈঠকের পরেই কংগ্রেস ও ডিএমকে এই সমঝোতায় এসেছে বলে জানা গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে কংগ্রেস নেতা দীনেশ গুণ্ডু রাও জানিয়েছেন, কংগ্রেসের হাইকমান্ডের সঙ্গে ডিএমকের স্ট্যালিনের সঙ্গে আলোচনা হয়। তারপরেই এই সিদ্ধান্তে পৌঁচেছে দুই দল। রবিবার সকাল ১০টার সময় এই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। আসন্ন নির্বাচনে এখন থেকে দুই দল একসঙ্গে কাজ করবে। জয়ের বিষয়ে আশাবাদী দীনেশ গুণ্ডু রাও। তামিলনাড়ুতে ডিএমকে ও কংগ্রেসের আসন সমঝোতা নিয়ে একাধিক বৈঠক হয়। বৈঠকে যোগ দিতে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি একাধিকবার তামিলনাড়ু যান বলে জানা গিয়েছে। তামিলনাড়ুর কংগ্রেস সভাপতি কে এল আলগিরি আগে মন্তব্য করেছিলেন, ডিএমকের ওপর সম্পূর্ণ বিষয়টি নির্ভর করছে। আসন বণ্টন ডিএমকে-কেই চূড়ান্ত করতে হবে।

ডিএমকে তামিলনাড়ুতে ১৮০টি আসনে লড়বে বলে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনে ডিএমকে কংগ্রেসকে ৪১টি আসন ছেড়েছিল। সেখান থেকে কংগ্রেস মাত্র আটটি আসনে কংগ্রেস জয় নিশ্চিত করতে পেরেছিল। তাই ডিএমকে এবার কড়া অবস্থান নিল। ডিএমকে ২৫টির বেশি আসন না ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কংগ্রেস নেতা রাও রবিবার বলেন, এআইএডিএমকের সঙ্গে জোট করে বিজেপি তামিলনাড়ুতে প্রবেশ করেছে। বিজেপি আসলে সমস্ত বিরোধী দলকে খতম করতে চাইছে। বিজেপি চাইছে, কেন্দ্রের পাশাপাশি দেশের সমস্ত রাজ্যে শুধু বিজেপির শাসন কায়েম থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here