ডেস্ক: সাপে নেউলে সম্পর্কের বাইরে বেরিয়ে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ড ট্রাম্প ও উত্তর কোরিয়ার প্রধানমন্ত্রী কিম জং উন অবশেষে রাজি হলেন বৈঠক করতে। ডোনাল্ড ট্রাম্প শনিবার এক বৈঠকে বলেন যে, ১২ জুন সিঙ্গাপুরে সম্মেলনে তিনি দেখা করবেন কিমের সঙ্গে। উত্তর কোরিয়ার দূতাবাস আধিকারিক কিম ইয়ং চোলের সঙ্গে প্রায় দু’ঘণ্টার বৈঠকের পর ট্রাম্প এই ঘোষণা করেন।

কিম ইয়ং চোল দুই দেশের শীর্ষ নেতাদের মধ্যে এই ঐতিহাসিক বৈঠক আয়োজনের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করেন। প্রথমে তিনি নিউইয়র্কে আমেরিকার বিদেশমন্ত্রী মাইক পম্পেইর সঙ্গে দেখা করেন এবং বৈঠকের বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন। কিছুদিন আগে পরমাণু চুক্তির বিষয় নিয়ে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হওয়ায় কিমের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন না বলে জানান ট্রাম্প। বেগতিক দেখে নরম হতে বাধ্য হন কিম। এর মধ্যে উত্তর কোরিয়ার একনায়কের কাছ থেকে একটি ব্যক্তিগত চিঠি পান ট্রাম্প। আর তারপরেই ফের বৈঠকে বসার সিদ্ধান্ত নেন।

কিমের চিঠিতেই বরফ গলল কিনা জানা নেই, তবে ঘটনা হল ট্রাম্প তাঁর সিদ্ধান্ত বদলে কিমের সঙ্গে বৈঠকে বসতে রাজি হয়েছেন। হোয়াইট হাউজে দাড়িয়ে ট্রাম্প বলেন যে, ‘আশা করছি এই বৈঠক ফলপ্রসূ হবে।’

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here