ফাঁদ রয়েছে! মমতার ডাকে বাংলায় আসা ভুল হবে, মোদীকে ‘সতর্কবার্তা’ বিজেপি সাংসদের

0
2259
kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: আড়াই বছর পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে প্রধানমন্ত্রীকে বীরভূমের কয়লা ব্লক দেউচা-পাচামির উদ্বোধনে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি। দিল্লি যাওয়ার আগেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, কোনও রাজনৈতিক উদ্দেশে নয়, রাজ্যের উন্নয়নের বিষয় নিয়ে বৈঠকে যাচ্ছেন তিনি। সেই প্রেক্ষিতে মোদীকে বাংলায় আমন্ত্রণ বড়রকমের পদক্ষেপ বলেই মনে করা হচ্ছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীকে পশ্চিমবঙ্গে না আসার জন্য তাঁকে চিঠি দিয়ে অনুরোধ জানালেন বিজেপি সাংসদ! তিনি স্বপন দাশগুপ্ত।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমন্ত্রণে প্রাথমিকভাবে সাড়া দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। জানা গিয়েছিল, সব ঠিক থাকলে দুর্গাপুজো এবং পরবর্তী সময়ে ছটপুজো মিটে গেলেই বাংলায় আসবেন মোদী। শুধু তাই নয়, দেউচা-পাঁচামির উদ্বোধনে এসে একইমঞ্চে দেখা যাবে মোদী-মমতাকে, এই নিয়েও জল্পনা ছড়ায়। কিন্তু বিজেপি সাংসদের বক্তব্য, ‘ভুল বার্তা যাবে’। রাজ্যসভার বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত দু’পাতার চিঠিতে প্রধানমন্ত্রীকে আবেদন করেছেন যে, ‘বাংলায় আসবেন না। ওই প্রকল্পে আপনার উপস্থিতি ভুল বার্তা দিতে পারে।’ তাঁর মতে, প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করার অর্থ হল, সব প্রক্রিয়া মেনে প্রকল্পের কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে। সেক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের সঙ্গে কয়লাখনির পরিবেশ ছাড়পত্র পাওয়া ও আদিবাসীদের পুনর্বাসনের বিষয়টি ধামাচাপা পড়ে যেতে পারে। এছাড়া আদিবাসীদের জমির উপর জমি-মাফিয়াদেরও নজর রয়েছে। তাই সেখানে বেআইনিভাবে টাকার লেনদেনের আশঙ্কাও রয়েছে। বিজেপি সাংসদের এই চিঠি প্রধানমন্ত্রীর দফতরে ইতিমধ্যেই পৌঁছেছে। এবার প্রধানমন্ত্রী কী সিদ্ধান্ত নেন, সেদিকেই নজর রাজনৈতিক মহলের।

উল্লেখ্য, বুধবার বিকাল ৪টে নাগাদ ৭ লোক কল্যাণ মার্গে প্রধানমন্ত্রী বাসভবনে পৌঁছন তিনি। সেখানে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা৷ বুধবার তাদের সাক্ষাতের পর পিএমও থেকে টুইট করা হয় তাদের সাক্ষাতের ছবি৷ যেখানে দেখা যায় হাসিমুখেই কথা বলছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও দেশের প্রধানমন্ত্রী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here