kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক: দেশ জুড়ে চলা লকডাউনের জেরে চরম বিপাকে পড়া মানুষের পাশে দাঁড়াতে বিভিন্ন সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প ঘোষণা করেছে কেন্দ্র। সেই পথে হেঁটে একাধিক রাজ্যও নিজেদের বিপন্ন নাগরিকদের জন্য আলাদা আলাদা প্রকল্প ঘোষণা করেছে। রাজ্যের আসংগঠিত ক্ষেত্রের শ্রমিকদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সরাসরি অর্থ সাহায্য করতে দিন কয়েক আগে ‘প্রচেষ্টা’ নামের এক প্রকল্প ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু শুরুতেই তা মুখ থুবড়ে পড়েছে।

জেলায় জেলায় প্রকল্পের ফর্ম বিলিকে কেন্দ্র করে অশান্তি ছড়ানোয় রাজ্য সরকার আপাতত অফলাইনে ফর্ম বিলি বন্ধ রাখার জন্য জেলা প্রশাসনগুলিকে নির্দেশ দিয়েছে। অনলাইনে কবে বা কীভাবে আবেদন নেওয়া শুরু হবে তাও আপাতত পরিস্কার নয়। এমত অবস্থায় চরম হতাশ রাজ্যের কাজ হারানো শ্রমিকেরা। প্রকল্প নিয়ে বিশৃঙ্খলার জন্য তারা প্রশাসনকেই দায়ী করেছেন। প্রশাসনের পাল্টা দাবি, ‘প্রচেষ্টা’ প্রকল্পের ফর্ম জমা নেওয়া শুরু হতেই সামাজিক দূরত্ব রক্ষার সরকারি নির্দেশ কার্যত শিকেয় ওঠে। এ খবর আসতেই নবান্ন থেকে রাজ্যের সমস্ত জেলার জেলাশাসককে আপাতত এই প্রকল্পের ফর্ম জমা নেওয়া স্থগিত করার নির্দেশ দেওয়া হয়।

প্রচেষ্টা প্রকল্পের ফর্ম মূলত বিডিও অফিস, ব্লক স্তরের অফিস থেকে বিলি করা হচ্ছিল। কিন্তু নিয়ম কানুন না মেনে লকডাউনের নির্দেশিকাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে শয়ে শয়ে মানুষ এই ফর্ম তোলার জন্য ভিড় জমাচ্ছিল। এভাবে ভিড় জমার জন্য আপাতর প্রচেষ্টা প্রকল্পকে স্থগিত করা হল। এই মর্মে সব জেলার জেলাশাসককে ইতিমধ্যে চিঠিও পাঠানো হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে।

আপাতত এই ফর্ম বিলি অনলাইনে চালু থাকবে কি না, সেটা নিয়ে কোন স্পষ্ট ইঙ্গিত দেওয়া হয়নি। তবে এই নতুন সিদ্ধান্তের ফরে অসংগঠিত শ্রমিকদের আশার আলো আবারও যে নিভে গেল সেটা বলাই বাহুল্য। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অবশ্য প্রকল্প স্থগিত রাখার কথা অস্বীকার করেছেন। তবে ফর্ম বিলির সময় গোলমাল হচ্ছিল সেকথা স্বীকার করে নিয়ে তিনি বলেন, অনলাইনে খুব শীঘ্রই নতুন করে আবেদন নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here