kolkata bengali news

ডেস্ক: বিধ্বংসী ঘূর্ণিঝড় গাজার উপদ্রবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গিয়েছে গোটা তামিলনাড়ু। ঘরছাড়া হয়েছেন প্রায় ৭৬ হাজার মানুষ। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে দক্ষিণী রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকায় আছড়ে পড়ে এই ঝড়। নাগাপট্টিনম এবং বেদানিয়ামে প্রায় ১০০-২০০ কিমি প্রতি ঘন্টায় ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে প্রবল বৃষ্টি হচ্ছে রাজ্যের এই দুই জেলায়। এখনও অবধি তামিলনাড়ুর ছয় জেলায় প্রায় ৩০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

এই বিধ্বংসী ঝড়ের ফলে সবথেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে নাগাপট্টিনম এলাকা। এই এলাকায় হাজার হাজার ঘরবাড়ি ভেঙে পড়েছে। বহু গৃহপালিত পশু মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছে। কাড্ডালোর, রামানাথাপুরম, তাঞ্জাভুর, পুডুকোটি এবং তিরুভারু জেলার অবস্থা অত্যন্ত শোচনীয়। সরাক্র ইতিমধ্যেই ঘোষণা করে দিয়েছে যে, মৃতদের পরিবার পিছু ১০ লক্ষ টাকা এবং আহতদের ১ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে।

উদ্ধারকাজের জন্য তৈরি রাখা হয়েছে ৩০ হাজার নিরাপত্তাকর্মী। উদ্ধার করা মানুষদের রাখা হয়েছে ৩০০টি ত্রাণ শিবিরে। উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ইতিমধ্যে পাঠানো হয়েছে জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের দলকে। বেশ কিছু জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহও বন্ধ হয়ে গিয়েছে গাজার প্রভাবে। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যাওয়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে আগেই। এবারে ছুটি দেওয়া হয়েছে বহু স্কুল-কলেজ সহ অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রত্যেকটি জেলাতেই জারি করা হয়েছে হাই-অ্যালার্ট। তবে হাওয়া অফিস জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here