kolkata news

মহানগর ডেস্কঃ ঘূর্নিঝড় তাওকতের কারণে স্ত্রস্ত গোটা রাজ্য। জারি করা হয়েছে লাল সতর্কতা। এরই মধ্যে সোমবার ভোরে কেঁপে উঠল পায়ের তলার মাটি।

জানা গিয়েছে, সোমবার ভোররাতে গুজরাটে কম্পন অনুভূত হয়েছে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ৪.৫। সোমবার ভোরে গুজরাটের একাধিক জায়গায় কম্পন বোঝা গিয়েছে বলে খবর। এখনও পর্যন্ত জানা গিয়েছে, এ দিন ভোর ৩টে ৩৭ মিনিটে ভূমিকম্প হয়। গুজরাটের দক্ষিণ রাজকোট এলাকায় ১০ কিলোমিটার গভীরে ভূমিকম্পের উৎসস্থল। এমনিতেই গুজরাটের একাধিক জায়গা ভূমিকম্প প্রবণ। অতীতেও ভূমিকম্পর নজির রয়েছে এ রাজ্যে। স্বভাবতই চিন্তায় পড়েছেন সেখানাকার মানুষ।

যত সময় এগোচ্ছে ততই ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে তাওকতে ঘূর্ণিঝড়। এই ঘূর্ণিঝড়-এর কবলে পড়ে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে গোয়া, দমন, দিউ, কর্ণাটক সহ একাধিক উপকূলবর্তীয় জায়গা। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, অতি শক্তিশালী এই ঘূর্ণিঝড় এখন মুম্বই উপকূলের কাছে পূর্ব-মধ্য আরব সাগরে অবস্থান করছে। আজ, সোমবার বিকেলেই গুজরাত উপকূলে কাছাকাছি সেটি প্রবেশ করবে। আজ রাতের মধ্যেই সর্বোচ্চ ১৮৫ কিলোমিটার গতিবেগ নিয়ে গুজরাত উপকূলে উনার কাছে আছড়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, মায়ানমারের দেওয়া এই ঘূর্ণিঝড়ের নাম তাওকতে। ঘূর্ণিঝড় এখন পরিণত হয়েছে চরম শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ে। উত্তর, উত্তর পশ্চিম দিকে এটি অগ্রসর হচ্ছে। এখনও পর্যন্ত এর অভিমুখ গুজরাত উপকূল। ১৭ মে সোমবার রাতেই এটি স্থলভাগে প্রবেশ করার সম্ভাবনা। এখনও পর্যন্ত যা অভিমুখ আছে আজ বিকেলে গুজরাতের পোরবন্দর ও মাহবুবার (ভাবনগর) মাঝে এটি স্থলভাগে প্রবেশ করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here