মহানগর ওয়েবডেস্ক: লকডাউনের মধ্যেই ইস্টবেঙ্গল ফুটবলারদের জন্য দুঃসংবাদ। ক্লাব এবং স্পনসরের দ্বন্দ্বে পড়ে লাল-হলুদ ফুটবলারদের এক মাসের বেতন মার যাচ্ছে। এমনটাই রিপোর্ট।

কোয়েস করোনা জনিত জরুরি পরিস্থিতির কারণ দর্শিয়ে এক মাস আগেই প্লেয়ারদের চুক্তি শেষ করছে। আইনি ভাষায় এই প্রক্রিয়াকে বলা হয় ‘ফোর্স ম্যাজা’। অর্থাৎ যেখানে কোনও সংস্থা অচিন্তিতপূর্ব পরিস্থিতির জন্য চুক্তি ভঙ্গ করতে পারে।

বিষয়টা লেসলি ক্লডিয়াস সরণির ক্লাব মন থেকে মেনে নিতে না-পারলেও তাদের কোনও হাত নেই এখানে। কোয়েসের কথাই চূড়ান্ত। কোয়েস কর্তা সঞ্জিত সেন নাকি ইমেলের মাধ্যমে ফুটবলারদের জানিয়েও দিয়েছেন যে তাঁরা মে মাসের বেতন পাবেন না। কোয়েসের সঙ্গে ইস্টবেঙ্গল ফুটবলারদের যা রয়েছে তাতে করে এই মে মাসের শেষ পর্যন্ত ফুটবলারদের বেতন দেওয়ার কথা কোয়েসের। এমনটাই দাবি লাল-হলুদ কর্তাদের।

এই সিদ্ধান্তের ফলে বিক্ষুব্ধ ফুটবলাররা যদি আইনি পথে হেঁটে ফিফার দ্বারস্থ হয়ে সমাধানের রাস্তা খোঁজেন, তাহলে তাঁরাই ব্যাকফুটে থাকবেন। কারণ ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা এই বিশ্বব্যাপী অতিমারীর কথা মাথায় রেখেই ফুটবলারদের বেতন কমানোর অনুরোধ করেছে আগে। কোয়েসের এই সিদ্ধান্ত স্পষ্ট বুঝিয়ে দিচ্ছে যে তারা যত দ্রুত সম্ভব ইস্টবেঙ্গলকে ঘাড় থেকে নামাতে পারলে বাঁচে। শতবর্ষের প্রাক্কালে থাকা ক্লাব দ্রুতই স্পনসরহীন হওয়ার পথে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here