মহানগর ওয়েবডেস্ক: গতবার আই লিগ জয়ের খুব কাছে এসেও ভারত সেরা হওয়ার স্বাদ অপূর্ণ রয়ে গিয়েছিল ইস্টবেঙ্গলের। এবার কলকাতা লিগেও অনেকটাই তাই অবস্থা। খেতাব জিততে হলে তাকিয়ে থাকতে হবে পিয়ারলেসের দিকে। যদিও সেইসব না ভেবে আজ শুধু নিজেদের কাজটা সম্পূর্ণ করতে চান লাল হলুদ কোচ আলেহান্দ্রো মেনেন্দেজ গার্সিয়া।

তবে আজ লিগের শেষ ম্যাচে নামার আগে দুদিন সময় পেলেও ফুটবলারদের অনুশীলন করাননি গার্সিয়া। ফুটবলারদের পর্যাপ্ত বিশ্রাম দিতেই সেই সিদ্ধান্ত। বরং বরাবরের মতোই জিমিং সেশন ও ভিডিও ক্লাসের উপরই ভরসা রেখেছেন। সেখানে মহামেডান ম্যাচের ভুলত্রুটি গুলো শুধরে দেওয়ার পাশাপাশি আজকের প্রতিপক্ষ কাস্টমস ম্যাচের ভিডিও দেখিয়ে শত্রুর কমজোর স্থানগুলিও চিহ্নিত করে দেন লাল হলুদের স্প্যানিশ কোচ।

তবে আজ ময়দানের দুই পোর খাওয়া বঙ্গ কোচের বিরুদ্ধে লড়াই ফাই প্রোফাইল স্প্যানিশ কোচের। একদিকে যেমন খেতাবি লড়াইয়ে তাকে তাকিয়ে থাকতে হবে জহর দাসের পিয়ারলেসের দিকে, তেমনই মাঠের ভেতর লড়তে হবে বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যের কাস্টমসের বিরুদ্ধে। কাস্টমস দল লিগে খুব একটা ভালো ফল না করলেও অন্য দুই প্রধানের থেকে পয়েন্ট কেড়েছে। ফলে তাদের বিরুদ্ধে বেশ কড়া লড়াই ইস্টবেঙ্গলের। কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্যের কথায়, ‘ইস্টবেঙ্গল ভাল দল, অনেক শক্তিশালী। কিন্তু আমাদেরও দেওয়ালে পিঠ ঠেকে গিয়েছে। ফলে আমাদের মরণকামর দেওয়া ছাড়া আর কোনও উপায় নেই।’

আজকের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে কার্ড সমস্যায় নেই দলের প্রধান অস্ত্র কোলাডো। যদিও তা নিয়ে ভাবতে রাজি নন সমর্থকদের প্রিয় ‘আলে স্যার’। বিকল্প নিয়ে যাতে ভাবতে না হয়, তাই গোটা লিগে দল ঘুরিয়ে ফিরিয়ে খেলিয়েছেন। কিন্তু সবচেয়ে বেশি তাকে যে জিনিসটা চিন্তায় রাখবে তা হল বৃষ্টি। এমনিতে ইস্টবেঙ্গল মাঠে খেলাটা অপছন্দের আলেহান্দ্রোর। তার মধ্যে সারারাত ধরে ক্রমাগত বৃষ্টি। ফলে ইস্টবেঙ্গল মাঠের অবস্থা যে বেশ খারাপ হয়ে যাবে, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শতবর্ষে প্রথম খেতাবের লড়াইয়ে আজ ঘরের মাঠটাই না ভিলেন হয়ে যায় ইস্টবেঙ্গলের কাছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here