kolkata bengali news

ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছে বিরোধীদের একাধিক অভিযোগনামা জমা পড়ছে। ফলে লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বৈঠকে বসতে চলেছেন উপ-মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। ইতিমধ্যেই তিনি শহরে এসে হাজির হয়েছেন। তাঁর সঙ্গে আরও কয়েকজন নির্বাচনী আধিকারিকও রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

শনিবার রাজ্যের সকল জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করবেন সুদীপ জৈন। ইতিমধ্যেই রাজ্যের ২২ হাজার বুথকে স্পর্শকাতর তালিকায় তুলে রেখেছে জেলা প্রশাসনগুলি। তবে এই বিষয়ে এখনও অবধি শিলমোহর দেয়নি নির্বাচন কমিশন। এদিকে জেলা প্রশাসনের এই রিপোর্টগুলি খতিয়ে দেখে নির্বাচন কমিশনকে পরামর্শ দিয়েছে। রাজ্যকে আজই চূড়ান্ত রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। শুক্রবার ডিএম-এসপিদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক করে কমিশন। রাজ্যের এই স্পর্শকাতর এলাকাগুলি নিয়ে কথা হয় এই বৈঠকে।

 

বুধবারই বাংলাকে দেশের অত্যন্ত স্পর্শকাতর রাজ্য হিসেবে ঘোষণার দাবিতে কমিশনের দ্বারস্থ হয় বিজেপি। সুষ্ঠুভাবে বাংলায় যাতে ভোট সম্পন্ন হয় তার জন্য যথাযোগ্য ব্যবস্থা নেওয়ারও আর্জি জানানো হয়েছে বিজেপির তরফ থেকে। তবে বিজেপির এই কাজকে মোটেই ভালোভাবে নেননি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গেরুয়া শিবিরের বিরুদ্ধে তোপ দেগে বলেন, বাংলাকে স্পর্শকাতর বলার কোনও অধিকার বিজেপির নেই। এখানে কোনও অশান্তি নেই। বিজেপির মাথা পুরোপুরি খারাপ হয়ে গিয়েছে। বাংলাকে যারা অতি স্পর্শকাতর বলছে তারা পুরোপুরি অসুস্থ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here