kolkata bengali news

ডেস্ক: হেমন্ত কারকারের মৃত্যু প্রসঙ্গে সাধ্বী প্রজ্ঞার বক্তব্য ছিল, মালেগাঁও মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়ার নির্দেশ এলেও তাঁকে ছাড়তে চাননি তদন্তের নেতৃত্বে থাকা হেমন্ত কারকারে। সেইসময় তিনি নাকি এটিএস আধিকারিককে অভিশাপ দিয়ে বলেছিলেন, ‘তোর সর্বনাশ হবে।’ সেই অভিশাপের জেরেই কয়েকদিনের মধ্যে মুম্বইয়ে জঙ্গি হামলায় গুলি লেগে মৃত্যু হয় তাঁর। এবার সাধ্বীর এই মন্তব্যের জন্য তাকে নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন।

নির্বাচনীবিধি লঙ্ঘন করার অভিযোগ তুলে সাধ্বীর মন্তব্যের ব্যাখ্যা জানতে চেয়ে তাকে নোটিস পাঠিয়েছে জেলার নির্বাচনী অফিসার এবং কালেক্টর। প্রয়াত হেমন্ত কারকারের বিরুদ্ধে ওই ধরনের মন্তব্য তিনি কেন করেছেন এবং এর পিছনে ঠিক কী কারণ রয়েছে তা জানতে চাওয়া হয়েছে কমিশনের তরফে। উল্লেখ্য,

ইতিমধ্যেই নিজের অবস্থান বদল করেছেন প্রজ্ঞা। বিবৃতি দিয়ে বলেছেন, ‘কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আঘাত দিতে চাইনি। কেউ যদি আঘাত পেয়ে থাকেন তাহলে ক্ষমা চাইছি। আমি এভাবে বলিনি। আমার মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।’

তবে এতে আদতে লাভ কিছু হয়নি। নোটিসের জবাব সাধ্বীকে দিতে হবেই।

প্রসঙ্গত, সাধ্বীর হেমন্ত কারকারেকে নিয়ে বিরূপ মন্তব্যের পর তীব্র বিরোধিতায় ফেটে পড়েন উপত্যকার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। উল্লেখ করেন, এই মন্তব্য দেশের খারাপতম দিন। পাশাপাশি তাকে প্রার্থী করার জন্য বিজেপিকেও একহাত নেন তিনি। প্রশ্ন তোলেন, সাধ্বীর মতো একজনকে প্রার্থী করে বিজেপি আদতে কী প্রমাণ করতে চাইছে তা বোঝা দায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here