kolkata bengali news

মহানগর ওয়েবডেস্ক:  ৭ নভেম্বরের মধ্যে মহারাষ্ট্রে বিজেপি পরিচালিত সরকার গঠন না হলে রাজ্যে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি হবে৷ এমনটাই মনে করেন রাজ্যের প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা সুধীর মগনেতর৷ সেই সঙ্গে এখনো তাঁর আশা শেষ পর্যন্ত এনডিএ পের মহারাষ্ট্রে সরকার গড়বে৷ শিবসেনা বিজেপিকেই সমর্থন করবে বলে বিশ্বাস করেন তিনি৷ তাঁর কথায়, মহারাষ্ট্রের জনতা মহাযুতি(সেনা-বিজেপির মহাজোট)কে ভোট দিয়েছে৷ সেই সঙ্গে তাঁর সোজা কথা, অম্বুজা সিমেন্ট বা ফেভিকলের চেয়েও মজবুত বিজেপি- শিবসেনার জোট৷ বাস্তব কিন্তু এই মুহূর্তে অন্য কথা বলছে৷ কী সে কথা?

মহারাষ্ট্রে এনডিএ জোটে আছে বিজেপি ও শিবসেনা৷ দুই দলের মোট বিধায়ক সংখ্যা ১৫৮৷ ২৮৮ সংখ্যার গাণিতিক নিয়মে অতি সহজে মহারাষ্ট্রে এই জোটের সরকার গঠন করার কথা ছিল৷ তবে বাস্তবে শিবসেনার মুখ্যমন্ত্রী কুরশির গোঁ মহারাষ্ট্রে মহাঘোঁট তৈরি করেছে৷ উদ্ধবের দল চাইছে তাঁদের প্রার্থী আড়াই বছর মুখ্যমন্ত্রী থাকুক, অবশিষ্ট আড়াই বিজেপি প্রার্থী হোক৷ এই ফর্মুলায় রাজী নয় পদ্ম শিবির৷ ফলে সরকার এখনও হয়নি৷ ইতিমধ্যে বিজেপি ফের দেবেন্দ্র ফড়নবিশকেই মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে মনোনীত করেছে৷ আগামী ৭ নভেম্বরে মুম্বই এর ওয়াংখেরে স্টেডিয়ামে ফের রাজ্যভিষেক হবে তাঁর৷ আর এখানেই বার বার বাধা দিচ্ছে শিবসেনা৷ এমনকী ঠাকরের দল কংগ্রেস- ন্যাশনাল কংগ্রেস পার্টির সাহায্য নিয়ে মহারাষ্ট্রে সরকার গড়তে চেষ্টা করছে৷

মহারাষ্ট্রের অর্থমন্ত্রী সুধীর মগনেতর জানান, ৮ নভেম্বর পর্যন্ত আগের ফড়নবিশ সরকারের আয়ু আছে৷ আর তাই ৭ নভেম্বর দ্বিতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে ফড়নবিশ শপথ নেবেন৷ তা না হলে রাজ্যে অবধারিতভাবে রাষ্ট্রপতির শাসন জারি হবেই বলে মনে করেন সুধীর৷ তাঁর কথায়, এখানে বিজেপি বা শিবসেনাকোনও বড় কথা নয়, আসল বিষয় হচ্ছে জনাদেশ৷ তা না মানলে জনগণ আমাদের কখনো ক্ষমা করবে না৷ শিবসেনা সাংসদ রাউতের আ়ড়াই বছরের ফর্মুলা নিয়ে তাঁর স্পষ্ট কথা, দেবেন্দ্র ফড়নবিশকে  ইতিমধ্যেই ফের মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছে তাই এখন আর এই নিয়ে কোনও কথাই হতে পারে না৷ এত সবের পরেও তিনি বিশ্বাস করেন যাবতীয় ভুল বোঝাবুঝির অবসান ঘটিয়ে বিজেপিকে মহারাষ্ট্রে ফের সরকার গড়তে সাহায্য করবে শিবসেনা৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here