kolkata news

নিজস্ব প্রতিনিধি : এবার নির্বাচন কমিশনকে তোপ দাগলেন কংগ্রেস নেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। শনিবার শীতলকুচির ঘটনায় নির্বাচন কমিশনকে নিশানা করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার কমিশনকে বিজেপির কমিশন বলে তোপ দাগেন অধীরও।

এদিন দলীয় প্রার্থীর সমর্থনে চৌরঙ্গীতে সভা করেন অধীর। প্রসঙ্গক্রমে সেখানেই আসে শীতলকুচির ঘটনা। কমিশনের ওপর বাংলার মানুষের আস্থা নেই বলেও জানিয়ে দেন অধীর। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, বাংলার মানুষ এই নির্বাচন কমিশনকে বিজেপির কমিশন বলেই মনে করেন। এই কমিশনের ওপর কোনও আস্থা নেই। কোনও বিশ্বাস নেই। আমি চাই নির্বাচন কমিশন শীতলকুচির ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করে যাদের কারণে পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করুক।

চৌরঙ্গীতে সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী হয়েছেন কংগ্রেসের সন্তোষ পাঠক। এদিন তাঁর সমর্থণেই সভা করেন অধীর। তিনি বলেন, শীতলকুচির ঘটনায় শোচনীয়ভাবে ব্যর্থ হয়েছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশনের ওপর আশা-ভরসা হারিয়েছেন বাংলা মানুষ। এখন সঠিক তদন্ত করে ব্যবস্থা না নিলে কমিশনের ওপর আস্থা আর ফিরবে না সাধারণ মানুষের।

অধীর বলেন, যারা গুলি চালিয়েছে, তাদের ভাষায় কথা বলছে নির্বাচন কমিশন। কমিশন আর কমিশন থাকবে না। কমিশনের প্রতি মানুষের আস্থা ভেঙে গিয়েছে। আমরা নির্বাচন কমিশন মেনে চলতে বাধ্য। তা বলে নির্বাচন কমিশন তার দায় এড়াতে পারে না। শীতলকুচির ঘটনায় কমিশন সম্পূর্ণ ব্যর্থ হয়েছে।

দিন কয়েক আগেও প্রায় একই সুরে কথা বলেছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো। শনিবারের ঘটনার দায় কমিশন এড়াতে পারে না বলেও ঠারেঠোরে বুঝিয়ে দিয়েছেন তিনি। এদিন অধীরও কমিশনকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোয় নিঃসন্দেহে বিষয়টি ভিন্ন মাত্রা পেল বলেই ধারণা রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।  

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here