pic-kolkata bengali news

ডেস্ক: হাতে গুনে বাকি মাত্র কয়েকদিন। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই ঘোষণা হয়ে যেতে পারে লোকসভা নির্বাচনের দিনক্ষণ। বিরোধীদের যদিও অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর একাধিক শিলান্যাস কর্মসূচির কারণেই ইচ্ছাকৃতভাবে দেরি করছে নির্বাচন কমিশন। এই তরজার মধ্যেই শুক্রবার নির্বাচনের দিন নির্ধারন নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসল কমিশন। এবারের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল আরোরা সহ আরও দুই কমিশনার অংশ নিয়েছেন এই বৈঠকে।

এদিনের বৈঠকেই লোকসভা নির্বাচন কয় দফায় হতে পারে সেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে গতবারের তুলনায় এবার কম দফায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে। প্রসঙ্গত, গতবার ৯ দফায় অনুষ্ঠিত হয়েছিল লোকসভা নির্বাচন। এবার সেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে পারে ৭ দফায়। তবে প্রয়োজনের নিরিখে তা ৬ বা ৮ দফায়ও করা হতে পারে। সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহের শেষ ভাগে যে কোনও দিন লোকসভা নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করতে পারে কমিশন। যদি আগামী সপ্তাহে তা নাও হয় তবে তার পরের সপ্তাহে প্রথমভাগেই লোকসভার দিনক্ষণ ঘোষণা করতে পারেন মুখ্য কমিশনার। এদিনের বৈঠকে নেওয়া সিদ্ধান্তগুলির মধ্যে অন্যতম হল, বুথ হিসেবে কতটা নিরপত্তা আরোপ করা হবে এবং ইন্টারনেট সংক্রান্ত কেমন পদক্ষেপ নেওয়া সম্ভব।

 

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ৯ দফায়। ৭ মার্চ থেকে শুরু হওয়া নির্বাচন শেষ হয় ১২ মে। এবার যেহেতু কমিশন এখন পর্যন্ত দিনক্ষণ ঘোষণা করেনি, ফলে বিশেষজ্ঞ মহলের ধারনা নির্বাচন শেষ হতে হতে মে মাস গড়িয়ে যেতে পারে। তবে যাই হোক না কেন পুরো প্রক্রিয়া ৩ জুনের মধ্যে শেষ হওয়া বাধ্যতামূলক। কারণ সেদিন শেষ হচ্ছে বর্তমান লোকসভার মেয়াদ। একই সঙ্গে মনে রাখা দরকার, বেশ কিছু রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচনও লোকসভার সঙ্গে একত্রেই অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। যার মধ্যে রয়েছে ওড়িশা, জম্মু-কাশ্মীর, সিকিম, অন্ধ্রপ্রদেশ ও অরুণাচল প্রদেশ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here