ডেস্ক: নির্বাচনী মরসুমে প্রচারে বেরিয়ে মুখ ফুটে এমন কিছু মন্তব্য করে ফেলছেন শাসকদলের নেতা-প্রার্থীরা যাতে করে নির্বাচন কমিশনের তোপের মুখে পড়তে হয়েছে তাদের৷ অনুব্রত মণ্ডল, ফিরহাদ হাকিম, জিতেন্দর তিওয়ারি তো ছিলেনই এবার সেই তালিকায় নতুন সংযোজন হল পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূল সভাপতির নাম৷ কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের হাত মুচড়ে ভেঙে দিতে বলায় নির্বাচন কমিশনের রোষের মুখে পড়তে হয়েছে তাঁকে৷

পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূল সভাপতি অজিত মাইতিকে শোকজ করেছে কমিশন৷ আশানুরূপ উত্তর না পেলে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থাও নেওয়া হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে কমিশন৷ বিতর্কিত মন্তব্য করে যখন বিপাকে পড়েই গিয়েছেন তখন নিজেতে বাঁচাতে সাফাই গেয়েছেন তৃণমূল সভাপতি৷ বলেছেন, তিনি খারাপ কিছু বলতে চাননি৷ মেদিনীপুরের ঘাটাল লোকসভা কেন্দ্র থেকে অভিনেতা দেব তথা দীপক অধিকারীকে প্রার্থী করা হয়েছে৷ দেবের উপস্থিতিতে একটি কর্মীসভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনীর হাত মুচড়ে দিতে বলেন তিনি৷ কর্মীদের উদ্দেশ্যে উসকানি দিয়ে তিনি বলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনী বাড়াবাড়ি করলে তাঁর হাত মুচড়ে দিতে হবে৷

 

নিজের এই মন্তব্যের পরই কেন্দ্রীয় বাহিনীর কত বড় হিম্মত আছে বলে শাসানিও দেন তিনি৷ ওই মঞ্চেই হাজির ছিলেন ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী অভিনেতা দেব৷ পশ্চিম মেদিনীপুরের জেলা তৃণমূল সভাপতি যখন কেন্দ্রীয় বাহিনীকে এইভাবে শাসানি দিচ্ছিলেন, দায়িত্বশীল জনপ্রতিনিধি হয়ে কিভাবে দেব দলীয় এক নেতার এমন মন্তব্য হজম করে নিলেন তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে রাজনৈতিক মহলে৷ জানা গিয়েছে, অজিত মাইতির এই বক্তব্যের ভিডিও নির্বাচন কমিশনের কাছে জমা পড়ে৷ তারপরেই তাকে রিপোর্ট তলব করে কমিশন৷ অজিত মাইতি নিজের সাফাইয়ে বলেন সায়ন্তন বসুর একটি বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতেই তিনি এই কথা বলতে চেয়েছেন, খারাপ কিছু বলার উদ্দেশ্য ছিল না তার৷

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here