kolkata bengali news

নিজস্ব প্রতিবেদক, কোচবিহার: রাত পোহালেই জেলার জনতা নিজের নিজের বুথে গিয়ে দাঁড়াবে ভোট দেওয়ার লাইনে। সেই ভোটেই ভাগ্য নির্ধারিত হয়ে যাবে ভোট প্রার্থীদের। সেই সব প্রার্থী তালিকায় রয়েছে বেশ জোরদার এক নাম, নিশীথ প্রামাণিক। যুব তৃণমূলের ডাকাবুকো এই নেতা জোড়াফুল ছেড়ে এসে পদ্ম শিবিরের প্রার্থী হয়েছেন। এই দাপুটে যুব নেতাকে জেতাতে জেলায় সভা করে গিয়েছেন খোদ দেশের প্রধানমন্ত্রীও। কিন্তু সময়টা বোধহয় ভাল যাচ্ছে না নিশীথের। তাই তার বিরুদ্ধে এবার পদক্ষেপ নিল খোদ নির্বাচন কমিশন। তারা এফআইআর দায়ের করলেন নিশীথের নিরুদ্ধে। কারন হিসাবে উঠে আসছে কর্তব্যরত এক এনভিএফ কর্মীকে হেনস্থা করার ঘটনা।

জানা গিয়েছে, গত রবিবার কোচবিহারের রাসমেলা মাঠে নির্বাচনী সভা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার একদিন আগে শনিবার সভাস্থল পরিদর্শনে যান বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক। সেই সময় মাঠে এক এনভিএফ কর্মী কাঁধে রাইফেল নিয়ে সবুজ রঙের গেঞ্জি পরে ঘুরছিলেন। বিষয়টি নজরে আসতেই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন নিশীথবাবু। তিনি কেন তাঁর ডিউটির পোশাক পড়েননি তা জানতে চান। এমনকি তাঁর পরিচয়পত্রও দেখতে চান তিনি। অভিযোগ, দীপক বর্মণ নামে ওই এনভিএফ কর্মী সেই সময় জানায় যে সে পরিচয়পত্র আনতে ভুলে গিয়েছে। সেই কথা শুনে নিশীথের সঙ্গে থাকা তার অনুগামীরা নিশীথের নির্দেশে ওই এনভিএফ কর্মীকে শারীরিক ভাবে হেনস্থা করেন নিশীথেরই নির্দেশে। পরে অবশ্য জানা যায় দীপক বর্মণ বাস্তবিকই এনভিএফে কর্মরত। পুরো বিষয়টি সে সময় মাঠে উপস্থিত থাকা সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের ক্যামেরায় ধরা পড়ে।

সেই ফুটেজ নিয়েই বিষয়টি নিয়ে কমিশনের কাছে অভিযোগ জানায় তৃণমূল। সেই অভিযোগ পেয়ে জেলাশাসকের কাছ থেকে মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক অ্যাকশন টেকেন রিপোর্ট চেয়ে পাঠান। সেই রিপোর্ট হাতে আসার পরই নিশীথের বিরুদ্ধে এফআইআর করার সিদ্ধান্ত নেয় কমিশন। যেখানে রাত পোহালেই ভোট সেখানে বিজেপি প্রার্থীর বিরুদ্ধে এহেন পদক্ষেপে বেশ চাঞ্চল্য দেখা গিয়েছে গোটা কোচবিহার জেলাতেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here