ডেস্ক: পঞ্চায়েত নির্বাচন নিয়ে রাজ্য রাজনীতি এখন সরগরম৷ শাসক-বিরোধী রাজনৈতিক তর্জা থেকে শুরু করে, হাইকোর্টে পঞ্চায়েত সংক্রান্ত মমালা এখন লোকের মুখে মুখে ঘুরছে৷ ঠিক সেই সময়ই মারাত্মক এক অভিযোগ এনেছিলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা৷ রবিবার একটি সাংবাদিক বৈঠকে রাহুল সিনহা জানান, ‘নির্বাচন কমিশন তৃণমূলের স্থাবক রূপে কাজ করছে৷ তৃণমূলের মন্ত্রী ও নেতাদের পক্ষ থেকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে কমিশনারকে৷ আর মৃত্যু ভয়ে কমিশনার এখন ছুটে বেড়াচ্ছে৷ অবিলম্বে আদালতে কমিশনারের গোপন জবানবন্দি দেওয়া উচিত৷’

কমিশনকে নিয়ে রাহুল সিনহার এই অভিযোগ কিন্তু মারাত্মক৷ পাল্টা তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, এই অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা৷ নির্বাচন কমিশনার সকলের সামনে প্রকাশ্যে বলুন, আমাদের পক্ষ থেকে কেউ বা কারা এই হুমকি দিয়েছে কি না৷’ এরপরই সোমবার বিকেলে রাজ্য নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্র কুমার সিং একটি সাংবাদিক বৈঠছক ডাকেন৷ সেখানে তিনি রাহুল সিনহার অভিযোগ খারিজ করে দেন৷ সংবাদ মাধ্যমের সামনে কার্যত রাহুল সিনহাকে মিথ্যাবাদী অ্যাখ্যা দেন অমরেন্দ্র কুমার সিং৷

তিনি বলেন, ‘একটি রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে সাংবাদিক বৈঠক করে গতকাল বলা হয়েছিল৷ সেখানে আমাকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলা হয়েছিল৷ আমি কোনওরকমের প্রাণনাশের হুমকি তৃণমূল কংগ্রেস বা অন্য কোনও রাজনৈতিক দল কিংবা কোনও ব্যক্তির পক্ষ থেকে পাইনি৷ আমার জন্য যথেষ্ট নিরাপত্তারক্ষী থাকে৷ এটা একটা মারাত্মক অভিযোগ৷ এবং যার পুরোটাই মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে৷ আমার ফোনও ট্র্যাপ করা হচ্ছে না৷ আমাকে বাড়িতে গিয়ে চাপ সৃষ্টিও করা হচ্ছে না৷ পুরোটাই মনগড়া৷ ১০ তারিখের পর থেকে কোনও প্রতিনিধি দলও আসেনি আমার কাছে৷ আর যদি আমাকে কেউ হুমকি দেয় , তাহলে আমি সবচেয়ে আগে পুলিশে অভিযোগ জানাতাম৷ কিন্তু সেরকম কিছুই ঘটেনি৷’

ভোটের নিরাপত্তা সংক্রান্ত প্রশ্ন করা হলে কমিশনার জানান, ‘এখন গোটা বিষয়টি হাইকোর্টে বিচারাধীন৷ আদালত চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করার পরই আমি নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে সাংবাদিক বৈঠক করে সমস্ত কিছু জানাবো৷’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here