dilip ghosh

Highlights

  • মেদিনীপুরে বসন্ত উৎসবে যোগ দিতে এসেছিলেন দিলীপ ঘোষ
  • দিলীপ বলেন, পশ্চিমবঙ্গের ভোট কালচারে পরিবর্তন আসুক
  • বিজেপি নেতার দাবি, শাহিনবাগে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলনরত মহিলারা নেশাগ্রস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক, মেদিনীপুর: হোলি আর ভোট এক নয়। ভোট যেন রক্তের হোলি না হয়। দোলের দিনেও রাজনীতির ছোঁয়া এনে এমনই মন্তব্য করলেন মেদিনীপুরের সাংসদ তথা রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ। অরাজনৈতিক সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত বসন্ত উৎসবের অনুষ্ঠানে রাজনীতি নিয়ে কথা কেন, তা নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। তবে তাঁর এদিনের বক্তব্য থেকে রবীন্দ্রভারতী, ভোট বা শাহিনবাগ বাদ যায়নি কোনও বিষয়ই।

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বিভিন্ন সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত বসন্ত উৎসবে যোগ দিয়েছিলেন সাংসদ দিলীপ ঘোষ। দোলের দিন সকাল থেকেই যোগ দেন শহরের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে। সকাল ১১ টা নাগাদ মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর হলে আয়োজিত এক বসন্ত উৎসবে এসে তিনি বলেন, সকল মানুষ শামিল হোক সম্প্রীতির হোলি উৎসবে। এরপএরেই রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, ‘হোলি টা হোলির মতোই হোক, ভোটটা ভোটের মতই হোক। ভোট যেন রক্তের হোলি না হয়।’ এনআরসি-সিএএ-র বিরোধিতা করে শাহিনবাগে আন্দোলনরত মহিলাদের প্রসঙ্গে বলেন, এঁরা সকলেই নেশায় আসক্ত হয়ে প্রতিবাদ করছেন।

এদিন তিনি বলেন, ‘পশ্চিমবাংলার ভোট কালচারের পরিবর্তন হোক। হোলিতে শুদ্ধতা পবিত্রতা ভালবাসার পরিবেশ থাক।’ রবীন্দ্রভারতীতে রবীন্দ্রসংগীতকে বিকৃত করে অশ্লীল শব্দ লেখা প্রসঙ্গে বলেন, ‘হোলির আগেই একটা অপসংস্কৃতি আনার চেষ্টা করা হয়েছে। সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন করব এই ধরণের অপসংস্কৃতি থেকে বাংলার সংস্কৃতিকে বাঁচান।’

এদিন দিলীপ ঘোষ শাহিনবাগ নিয়ে নিজের আগের মন্তব্যকেই জিইয়ে রেখে মহিলা আন্দোলনকারীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আজাদি স্লোগান চলছে। পাকিস্তানের স্লোগান চলছে। মেয়েদের সামনে রেখে এসব করা হচ্ছে। আর তারা প্রকাশ্যে ড্রাগ নিচ্ছে, এই ভিডিও আমরা দেখেছি। আমি তাই বলেছি। মহিলাদের এটা করা কাজ নয়।’ বলেন, যারা এই নিয়ে তাঁকে সমালোচনা করছেন তাঁরা আসলে নেশাগ্রস্ত মহিলাদের সমর্থন করছেন। তাঁদের উদ্দেশে ধিক্কার জানিয়েছেন বিজেপি নেতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here