নিজস্ব প্রতিবেদক, ঝাড়গ্রাম: ফের দাঁতাল হাতির মৃত্যু ঝাড়গ্রামে। শুক্রবার সকালে ঝাড়গ্রাম জেলার নয়াগ্রামের আঢ়রাগ্রামে একটি পূর্ন বয়স্ক স্ত্রী দাঁতালের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত হাতির সঙ্গে সেলফি ও রীতিমতো পূজা শুরু হয়েছে। কিন্তু কিভাবে এই দাঁতালের মৃত্যু হয়েছে সেই বিষয়েই প্রশ্ন ঘুরে ফিরে বেড়াচ্ছে এলাকার বাসিন্দাদের মনে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, স্থানীয় বাসিন্দা দিলীপ সিংহ বাড়ির কাছে মৃত অবস্থায় পড়েছিল হাতিটি।

খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন কেশররেখা রেঞ্জ বনদফতরের কর্মীরা। বনদফতরের প্রাথমিক অনুমান, অসুস্থ হওয়ার কারণে মৃত্যু হয়েছে ঐ দাঁতালের। তবে বিদ্যুতপৃষ্ট হয়েও স্ত্রী দাঁতাল হাতিটির মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে সেই সন্দেহও এখনও উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছেনা।

এই কারণেই হাতির দেহটিকে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে পাঁচকাহানিয়া বিট অফিসে।ময়না তদন্তের পরেই তার মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে বলে জানিয়েছেন বনকর্মীরা। বৃহস্পতিবার এই এলাকাতেই তান্ডব চালায় হাতির দলটি। সারারাত হাতি তাড়ানোর প্রচেষ্টা চালায় গ্রামবাসীরা। এরপরেই শুক্রবার সকালে উদ্ধার হয় মৃতদেহ। বনদফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, ওড়িশা থেকে আসা প্রায় পঁয়ত্রিশটির বেশি হাতি নয়াগ্রাম ব্লকের বিভিন্ন জঙ্গলে ঘোরাঘুরি করছে। উল্লেখ্য ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড সীমান্ত পেরিয়ে বিভিন্ন সময় হাতির দল জঙ্গলমহলে ঢুকে রেসিডেন্সিয়াল হয়ে পড়ে। ফলে হাতির হানায় ফসলের ক্ষতি ও বাড়িঘর ভাঙার পাশাপাশি মানুষের মৃত্যুর ঘটনাও ঘটে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here