নিজস্ব প্রতিবেদক, জলপাইগুড়ি: খাবারের লোভে গ্রামের ক্ষেতে, গৃহস্থের বাড়িতে দাঁতালের হানা দেওয়ার ঘটনা ধুপগুড়ি ব্লকের ঝাড় আলতাগ্রাম ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার নিত্য-নৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু এবার দাঁতালের তাণ্ডব থেকে রেহাই পেল না গ্রামের স্কুলও। দাঁতালের হানায় ভাঙল স্কুলের অফিস ঘর থেকে শুরু করে ক্লাসঘরও। শনিবার গভীর রাতে আলতাগ্রাম ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের খুট্টিমারী এলাকার এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। বন দফতরের কাছে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবিতে সরব হয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার রাতে মরাঘাট জঙ্গল থেকে একটি হাতি খুট্টিমারী এলাকায় ঢুকে পড়ে। হাতিটি লোকালয়ে ঢুকে সোজা চন্দ্রকান্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে হানা দেয়। ওই স্কুলে মজুত মিড ডে মিলের খাবার পেয়ে যাওয়ায় আর অন্য কোথাও হানা দেয়নি। স্কুল থেকে বেরিয়ে সে একেবারে এলাকা ছেড়ে দেয়। তবে গোটা স্কুলে হাতিটি ব্যাপক তাণ্ডব চালিয়েছে। স্কুলের তরফে জানানো হয়েছে, স্কুলের মিড ডে মিল মজুত রাখার ঘরটিতে খাবার থেকে শুরু করে বাসনপত্র চারদিকে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে পড়েছিল। মিড ডে মিলের জন্য যে সামান্য খাবার মজুত ছিল, সেগুলি সাবাড় করেছে গজরাজ। তারপরেও স্কুলের অফিস ঘর থেকে শুরু করে ক্লাসঘরে সে তাণ্ডব চালিয়েছে। খাবারের লোভেই হাতিটি স্কুলে তাণ্ডব চালায় বলে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে। কেননা খাবারের লোভে হাতিটি বেশ কিছুদিন ধরেই এই এলাকায় ঢুকে জমির ফসল এবং গৃহস্থের ক্ষতি করছে বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ।

তবে যে কারণেই আসুক না কেন, হাতির তাণ্ডবে স্কুলের ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছেন চন্দ্রকান্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক পরেশ রায়। তাঁর কথায়, ‘এই মুহুর্তে স্কুলের যা অবস্থা, তাতে পঠনপাঠন চালানো অসম্ভব। স্কুলের যা ক্ষতি হয়েছে তাতে তা ঠিক করতে প্রায় ২ লক্ষ টাকা প্রয়োজন।’ বিষয়টি নিয়ে বন দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও স্পষ্ট কোনও জবাব মেলেনি বলে তিনি জানিয়েছেন। এপ্রসঙ্গে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য মহন্ত রায় বলেন, ‘মরাঘাট জঙ্গল থেকে হাতিটি ঢুকে পড়েছিল। বন দফতরকে জানানো হয়েছে। কিন্তু এদিন বেলা ১১ পর্যন্ত বন দফতরের তরফে কেউ আসেনি। তারা কেবল ফোনে ফোনে সামান্য ক্ষতিপূরন দেওয়ার কথা জানিয়েছে।’ তাই পুনরায় স্কুল চালু করার জন্য ২ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণের বিষয়টি নিয়ে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here