ডেস্ক: সেনা ও জঙ্গির গুলির লড়াইয়ে নতুন করে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল উপত্যকা। বুধবার ভোরে দক্ষিন কাশ্মীরের কুলগাম জেলার খুদওয়ানিতে জঙ্গি ও সেনা বাহিনীর মধ্যে গুলির লড়াই শুরু হয়। জঙ্গিদের গুলিতে শহিদ হয়েছেন এক সেনা জওয়ান। জঙ্গিরা যাতে কোনওভাবেই পালাতে না পারে এবং নতুন করে যাতে সংঘর্ষ ছড়িয়ে না পড়ে তাই, এলাকার মোবাইল ও ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে।

সূত্রের খবর গতকাল রাত সাড়ে ১১ টা নাগাদ খবর আসে বেশ কয়েকজন জঙ্গি ওই এলাকা দখল করে রেখেছে। সেই মতো প্রস্তুত হন সেনা জওয়ানরা। গতকাল রাতেই ওই এলাকা ঘিরে ফেলা হয়। জানা যায়, দুই থেকে তিন জন জঙ্গি ওই এলাকায় লুকিয়ে রয়েছে। সেনা উপস্থিতি টের পেয়ে সেনাকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়তে শুরু করে জঙ্গিরা। এরপর পাল্টা জবাব যায় সেনার পক্ষ থেকেও।এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত জঙ্গিদের গুলিতে শহিদ হয়েছেন এক জওয়ান। আহত ৩ জওয়ান। এদের মধ্যে ২ জন সেনাবাহিনীর এবং তৃতীয়জন সিআরপিএফের।। জঙ্গিদের ইতিমধ্যেই ঘিরে ফেলেছে সেনা। চলছে গুলির লড়াই।

উল্লেখ্য, একদিকে পাকিস্তান এবং তাঁদের সমর্থনে উপত্যকায় জঙ্গি হামলায় দুয়ে মিলে বিদ্ধস্ত জম্মু কাশ্মীর। সোমবার পাক সেনার ছোড়া গুলিতে উপত্যকায় শহিদ হন বিনোদ সিং ও জ্যাকি শর্মা দুই সেনা জওয়ান। সোমবার সন্ধে ৫টা ১৫ মিনিট রাজৌরি জেলার সুন্দরবনি সেক্টরে অস্ত্রবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে পাকিস্তানি সেনা। আর সেখানেই পাক গুলিতে শহিদ হন ২৪ বছর বয়সী বিনোদ সিং ও ৩০ বছর বয়সী জ্যাকি শর্মা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here