bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সবজি বাজারে মূল্যবৃদ্ধি রুখতে ফের আচমকা বিভিন্ন বাজারে হানা দিল কলকাতা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ। মঙ্গলবার দুপুরে পাঁচটি আলাদা আলাদা দলে ভাগ হয়ে শহরের মোট ৫২টি সবজি বাজারে হানা দেন এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা। বিভিন্ন বাজারে গিয়ে সরেজমিনে খতিয়ে দেখেন শাক সবজির দামের বাস্তব চিত্রটি। কথা বলেন ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে। বাজার মূল্য থেকে অধিক দামে কেউ শাক সবজি বিক্রি করলেই তাদের কড়া হুঁশিয়ারি দেন এনফর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা।

কয়েক মাস আগে পেঁয়াজের দাম আকাশছোঁয়া হতেই নড়েচড়ে বসেছিল রাজ্য সরকার। খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একাধিকবার উদ্বেগ প্রকাশ করেন এই বিষয়ে। তার নির্দেশেই রাস্তায় নামে রাজ্য সরকারের স্পেশাল টাস্কফোর্স এবং কলকাতা পুলিশের এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ। শুরু হয় বিভিন্ন বাজারে হানা দেওয়া। এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ এবং স্পেশাল টাস্কফোর্সের যৌথ তৎপরতায় তখন আপাতত ভাবে কিছুটা হলেও দাম কমেছিল পেঁয়াজের। তবে সময়ের সঙ্গে নতুন বছরে পরিস্থিতি অনেক বদলেছে। বর্তমানে নাসিক সহ মহারাষ্ট্রর বিভিন্ন জায়গা থেকে পেঁয়াজের আমদানি বেড়েছে বাংলায়। ফলে আগের থেকে পেঁয়াজের দাম অনেকটাই কমেছে বাজারে। এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ সূত্রে খবর, তবুও কলকাতার কিছু কিছু বাজারে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বাড়তি মুনাফা অর্জন করতে বেশ কিছু জিনিস শাকসবজির দাম বাড়িয়ে বিক্রি করছেন বলে অভিযোগ আসে।

মঙ্গলবার ৫টি দল দলে ভাগ হয়ে দক্ষিণ কলকাতার ২৮টি বাজার সহ গোটা শহরের মোট ৫২টি সবজি বাজারে হানা দেন এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চের আধিকারিকরা। খতিয়ে দেখেন বিভিন্ন শাক সবজির বিক্রয় মূল্য। এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ সূত্রে খবর, একদিন এক পেঁয়াজ বিক্রেতা পেঁয়াজের দাম ১৫ টাকা বাড়িয়ে বিক্রি করায় আধিকারিকদের তোপের মুখে পড়েন তিনি।ওই বিক্রেতাকে কড়া হুঁশিয়ারি দেওয়া হয় পেঁয়াজের দাম ন্যায্য মূল্যে বিক্রি করার জন্য। এনফোর্সমেন্ট ব্রাঞ্চ সূত্রে খবর, এদিন লেক মার্কেট, টালিগঞ্জ, যাদবপুর, যদুবাবুর বাজার, ল্যান্সডাউন গড়িয়াহাট সহ একাধিক বাজারে সাদা পোশাকে হানা দেন আধিকারিকরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here