bengali news

নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা: পুরসভার স্কুলগুলোতে এবার প্রথম ভাষার আসন দখল করতে চলেছে ইংরেজি। পড়ুয়া টানতেই খুব শীঘ্রই এই সিদ্ধান্তে পড়তে চলেছে শিলমোহর। শুক্রবার এমনটাই জানান পুরসভার শিক্ষা বিভাগের এক আধিকারিক। এমনকি এই পদক্ষেপ ফলপ্রসূ হলে পরবর্তীকালে পুরসভার সমস্ত স্কুলগুলোই ইংরেজি মাধ্যম করে দেওয়া হবে বলেই জানান তিনি।

কলকাতার মধ্যে পুরসভার অধীনস্থ স্কুলের সংখ্যা রয়েছে ২৭৩ টি। যার ছাত্রসংখ্যা প্রায় ২৭ হাজার। এর মধ্যে রয়েছে ১৩০ টি বাংলা মাধ্যম স্কুল, ১৮ টি ইংরেজি মাধ্যম, ৪৪ টি হিন্দি মাধ্যম, ৫৮টি উর্দু মাধ্যম ও একটি উড়িয়া মাধ্যমের স্কুল। এরমধ্যে অনুমোদন রয়েছে ৪৭ টি স্কুলের। এছাড়াও রয়েছে ৫ টি জুনিয়র হাইস্কুল, এই স্কুলগুলি রয়েছে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত। এই সমস্ত স্কুলের মধ্যে বেশ কয়েকটি স্কুলে অনেকদিন ধরেই ছাত্র সংখ্যার ঘাটতি দেখা গিয়েছে। যার শীর্ষে রয়েছে হিন্দি, উড়িয়া ও উর্দু স্কুল গুলোর নাম। এই সমস্ত স্কুল গুলোতেই ছাত্র টানতে প্রথম ভাষা ইংরেজি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এবিষয়ে শিক্ষা বিভাগের ওই আধিকারিক জানান, ‘সমীক্ষা করে দেখার পর কয়েকটি বিদ্যালয় প্রথম পর্যায় প্রথম ভাষা ইংরেজি করে যদি দেখি ছাত্র সংখ্যা বাড়ছে আমরা এই কর্মসূচিতে সফল হচ্ছি তাহলে সে ক্ষেত্রে ধাপে ধাপে পুরসভার বাকি স্কুলগুলিতেও প্রথম ভাষা ইংরেজি করে দেওয়া হবে। ২০২০ সালের পয়লা জানুয়ারি থেকে এই কর্মসূচি শুরু হবে।’

এই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী স্কুলটি বাংলা মাধ্যমের হলে সেক্ষেত্রে প্রথম ভাষা ইংরেজি ও দ্বিতীয় ভাষা বাংলা করা হবে। একইভাবে উর্দু, হিন্দি, উড়িয়া মাধ্যমের স্কুলগুলোতেও ইংরেজি দ্বিতীয় ভাষা যথাক্রমে উর্দু, হিন্দি, উড়িয়া করা হবে। ওই আধিকারিকের কথায়, ‘অনেক ক্ষেত্রেই দেখা যাচ্ছে পুরসভার স্কুলগুলিতে পড়ুয়ার সংখ্যা বেশ কম। কি কারনে পড়ুয়ার সংখ্যা কমে যাচ্ছে তা জানতে একটি সংস্থাকে দিয়ে সমীক্ষা করাবো আমরা। এরপর প্রথম কয়েকটি স্কুলে প্রথম ভাষা হিসেবে ইংরেজি ও দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে যে মাধ্যমের স্কুল সেই ভাষা টিকে রাখা হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here