BJP_EVM

মহানগর ওয়েবডেস্ক: ইভিএম-এ বিজেপির প্রতীকের নীচে দলের নাম লেখা নেই। ইংরেজিতে লেখা দলের নাম বলে যেটা মনে হচ্ছে, সেটা আসলে জলের ছবি। উত্তর ২৪ পরগনার ব্যারাকপুরে ইভিএম বিতর্ক নিয়ে তৃণমূলের দায়ের করা অভিযোগে জল ঢেলে এমনটাই জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। একইসঙ্গে নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, বিজেপির প্রতীক কমিশন স্বীকৃত। ২০১৪ সালেও এই প্রতীক ব্যবহৃত হয়েছিল। পদ্মফুলের নীচে ওটা জলেরই ছবি। তাতে দলের নাম কোনোভাবেই প্রতিফলিত হচ্ছে না।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার ব্যারাকপুর লোকসভার মক পোলকে কেন্দ্র করে ইভিএম নিয়ে নতুন অভিযোগে সরব হয় তৃণমূল। তাদের অভিযোগ, মক পোল চলাকালীন তৃণমূল এজেন্টরা লক্ষ্য করেন যে,

ইভিএম-এ প্রত্যেক প্রার্থীর পাশে দলের প্রতীক চিহ্ন থাকলেও কোনও দলের নাম লেখা নেই। কিন্তু শুধুমাত্র ব্যারাকপুরের প্রার্থী অর্জুন সিং-এর নামের পাশে প্রতীক চিহ্ন যেমন রয়েছে, তেমনই দলের নামও লেখা রয়েছে। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপির তরফে জানানো হয়, পদ্মফুল চিহ্নটি ইভিএম-এ এমনভাবে আঁকা রয়েছে যা দেখে দলের নাম মনে হবে, কিন্তু আদতে এরকম কোনও ব্যাপার নয়। তা সত্ত্বেও ঘটনাটি নিয়ে নির্বাচন কমিশনেরও দ্বারস্থ হয় তৃণমূল নেতৃত্ব। এবার নির্বাচন কমিশনও রাজ্যের শাসক দলের অভিযোগ খারিজ করে দিল।

বিজেপির বিরুদ্ধে ইভিএম-কারচুপির অভিযোগ এটাই প্রথম নয়। প্রথম দফার ভোট থেকেই ইভিএম নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে সরব হয় বিরোধীরা। তৃতীয় দফার ভোটের পর বিভিন্ন জায়গা থেকে ইভিএম বিকলেরও খবর এসেছে। একাধিকবার দেশের বিভিন্ন জায়গায় ইভিএম বিকল পাশাপাশি ভিভিপ্যাট নিয়ে সমস্যা বিজেপির বিরুদ্ধে যেন বিরোধীদের আরও জোর দিয়েছে। তবে এবার ইভিএম-এ বিজেপি দলের নাম লেখাকে কেন্দ্র করে নতুন বিতর্ক উঠলেও নির্বাচন কমিশনকে পাশে পেয়ে অনেকটাই স্বস্তিতে গেরুয়া শিবির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here