ডেস্ক: দেশের প্রথম লোকপালের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন সুপ্রিম কোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি পিনাকী চন্দ্র ঘোষ। মঙ্গলবার তাকি নিযুক্ত করেন দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। পিনাকী চন্দ্র ঘোষ ছাড়াও এই লোক পেলে আরও 8 জন সদস্য আছেন। এদের মধ্যে চারজন দেশের প্রাক্তন বিচারপতি।

প্রসঙ্গত সোমবারই সূত্র মারা গিয়েছিল প্রথম লোকপালের চেয়ারম্যান নিযুক্ত হতে চলেছেন বিচারপতি পিনাকী চন্দ্র ঘোষ। প্রথম লোক বলে যে চারজন বিচারপতি আছে তারা হলেন এলাহাবাদ হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী দিলীপ বাবাসাহেব ভোসলে, ঝাড়খণ্ড হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি প্রদীপ কুমার মোহান্তি, মণিপুর হাইকোর্টের প্রাক্তন প্রধান বিচারপতি অভিলাষা কুমারী ও ছত্তিসগড় হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি অজয় কুমার ত্রিপাঠি।

 

এছাড়া আরও যে চারজন এই লোকপালে আছেন তাঁরা হলেন, মহারাষ্ট্রের চিফ সেক্রেটারি দীনেশ কুমার জৈন, প্রাক্তন আইপিএস অফিসার অর্চনা রামাসুন্দরম, প্রাক্তন আইপিএস অফিসার আই পি গৌতম ও প্রাক্তন আইপিএস অফিসার মহেন্দ্র সিং। উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের মে মাসে আদালতের বিচারপতির পদ থেকে অবসর গ্রহণ করেন পিনাকী বাবু। এরপর ২০১৭ সালের জুন মাসে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যপদ পান তিনি। এবার তাঁকেই প্রথম লোকপালের চেয়ারম্যান হিসাবে নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র।

২০১৪ সালের একেবারে শুরুতে লোকপাল ও লোকায়ুক্ত বিল পাশ হয় সংসদে। কিন্তু ৫ বছর পেরিয়ে যাওয়া সত্ত্বেও সেই পদে কোনও নিয়োগ করেনি কেন্দ্রীয় সরকারের। সরকারের এই ঢিলেমির বিরুদ্ধে গিয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয় এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। যার জেরে সরকারের কাছে এবিষয়ে জবাব দিহি চায় আদালত। শীর্ষ আদালতে এর জেরে তীব্র ভর্ৎসনার মুখে পড়তে হয় কেন্দ্রকে। তারপরই লোকপাল কমিটি বানানোর সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্রীয় সরকার।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here