news bengali

মহানগর ওয়েবডেস্ক: করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের উপর খাড়ার চালিয়েছে মোদী সরকার। আগামী ১৮ মাসের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ডিএ বৃদ্ধি। সরকারের এহেন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যে সরব হয়ে উঠেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। সেই পথে হেঁটেই এবার মোদী সরকারের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন দেশের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং। স্পষ্ট ভাষায় এদিন তিনি জানান, ডিএ বন্ধ করার যে সিদ্ধান্ত সরকার নিয়েছে, তার কোনও প্রয়োজন ছিল না।

কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে ৪ শতাংশ বৃদ্ধি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্তে ইতিমধ্যেই সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন প্রায় ৫০ লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারী ও ৬১ লক্ষ পেনশনভোগী। যা নিয়ে আদালতে দায়ের হয়েছে মামলাও। এই প্রেক্ষিতে যেদিন সরব হয় মনমোহন সিং বলেন, দেশের এমন পরিস্থিতিতে সরকারি কর্মচারী ও সেনার ওপর এই ধরনের আর্থিক চাপ দেওয়ার কোনো প্রয়োজন ছিল না সরকারের। পাশাপাশি তিনি আরো বলেন ইতিমধ্যেই কংগ্রেসের তরফে এই সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা করা হয়েছে। এটা অনেকটা কাটা ঘায়ে নুনের ছিটে দেওয়ার মতো সিদ্ধান্ত।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় সরকারের মহার্ঘ ভাতা আটকে দেওয়ার এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই সরব হয়েছে জাতীয় কংগ্রেস। এক টুইট বার্তায় সরকারের বিরোধিতা করে গতকালই রাহুল গান্ধী জানান, যে সমস্ত মানুষেরা কঠিন এই পরিস্থিতিতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লড়াই করে চলেছেন তাদের ডিএ বন্ধ করে দেওয়াটা চরম অমানবিক একটি সিদ্ধান্ত। প্রয়োজনে বুলেট ট্রেন বন্ধ করুক সরকার। উল্লেখ্য, করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে সম্প্রতি সরকারি কর্মীদের ১৮ মাসের ৪ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা বৃদ্ধির যে পরিকল্পনা সরকার নিয়েছিল, তা খারিজ করে দেওয়া হয়েছে। এর এর প্রভাব পড়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের প্রায় এক কোটি চাকুরীজীবী ও পেনশনভোগীদের উপর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here