Home Featured চাকরি না পেয়ে অবসাদে, শিকল বন্দি মেধাবী পড়ুয়ারা

চাকরি না পেয়ে অবসাদে, শিকল বন্দি মেধাবী পড়ুয়ারা

0
চাকরি না পেয়ে অবসাদে, শিকল বন্দি মেধাবী পড়ুয়ারা
Parul

নিজস্ব প্রতিনিধি:  দীর্ঘদিন ধরে স্বপ্ন বুনেছিলেন দরিদ্র পরিবারের মেধাবী ছাত্রটি। একদিন বড় হবে। অনেক বড় হবে। স্বপ্নপূরণ করে দরিদ্র পরিবারের অবস্থা ফেরাবে। সেই অনুযায়ী দিনরাত এক করে চলেছিল পড়াশোনা। প্রতিটি পরীক্ষায় ভালো নম্বর যেন ছেলেটাকে ইঙ্গিত দিত, এই তো, স্বপ্নপূরণের বেশি দেরি নয়। কিন্তু এত চেষ্টার পরেও চাকরি পেল না ছেলেটা। অবসাদে এমন অবস্থা হল, যে বাড়ির সদস্যরা তাঁকে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখতে বাধ্য হয়েছেন। শিমলাপালের শালবনী গ্রামের বাসিন্দা প্রশান্ত মাণ্ডি এখন শিকল বন্দি এখন জীবন কাটাচ্ছেন।

জানা যায় ২০১৬ সালে একটি উচ্চমাধ্যমিক স্কুলের পার্শ্বশিক্ষকের ইন্টারভিউয়ের ডাক আসে। যুবক ইন্টারভিউয়ের জন্যও যায়। কিন্তু সেখান থেকে ফিরে আসে অন্য এক প্রশান্ত। কারও সঙ্গে কথা বলছিল না। ঘরের মধ্যে নিজেকে বন্দি রাখতেন। একসময় নিজের সমস্ত সার্টিফিকেট পুড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। বাধা দেয় বাড়ির লোক। ক্রমেই প্রশান্তকে আর আটকে রাখা যাচ্ছিল না। এরপরেই তাঁকে তাঁর পরিবারের সদস্যরা শিকল দিয়ে বন্দি রাখেন।

এই খবর প্রকাশিত হওয়ার পরেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। থানার ভারপ্রাপ্ত আইসি- সহ তৃণমূল কংগ্রেসের ব্লক সভাপতি ও সিমলাপাল পঞ্চায়েত সমিতির স্বাস্থ্য কর্মাধ্যক্ষ পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। পরিবারের সঙ্গে স্থানীয় প্রশাসনের আধিকারিকরা পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছেন। দ্রুত চিকিৎসা শুরুর আশ্বাস দেওয়া হয়েছে। জানানো হয়েছে, শুধু চিকিৎসা নয়, ওষুধের ব্যবস্থাও প্রশাসনের তরফে করা হবে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here